শরীয়তপুর সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, ৫ ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
আজ সোমবার | ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং

নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শিকদার

বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০ | ৮:২৭ পূর্বাহ্ণ | 467 বার

নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শিকদার

আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান, আওয়ামী যুবলীগের একজন কঠোর কর্মী, ভোজেশ্বর ইউনিয়নের যুবলীগের সাবেক সভাপতি, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যকরী পরিষদের ২বারের সদস্য, উপজেলার সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ভোজেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক সফল চেয়ারম্যান আলী আহম্মদ শিকদারের জ্যেষ্ঠ, সৎ ও যোগ্য ছেলে শহিদুল ইসলাম শিকদার পুনরায় নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। এজন্য আওয়ামীলীগের এ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী জননেতা এ কে এম এনামুল হক শামীম এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শরিয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি সাবেদুর রহমান (খোকা) সিকদার, সাধারণ সম্পাদক বাবু অনল কুমার দে এবং নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব হাচান আলী রাড়ী ও সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার হাচানুজ্জামান খোকনসহ নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সকলকে অভিনন্দন ও মুজিবীয় শুভেচ্ছা জানানো হয়।
গত ১৭ জানুয়ারী শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নড়িয়া উপজেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব হাচান আলী রাড়ী ও সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার হাসানুজ্জামান খোকনের সাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে শহিদুল ইসলাম শিকদারকে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনীত করা হয়েছে বলে জানানো হয়।
শহিদুল ইসলাম শিকদার পারিবারিকভাবেই রাজনীতির সাথে জড়িত। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আওয়ামীলীগের অঙ্গ-সংগঠন বাংলাদেশ যুবলীগ দিয়েই তার রাজনৈতিক হাতে খড়ি। যেহেতু তিনি পারিবারিক সূত্রে আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান তাই ভোজেশ্বর যে কোন সংগঠন তৈরির ক্ষেত্রে তার ভূমিকা ছিল প্রধান আর এজন্যই সর্বপ্রথম ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। এরপরে নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ২ বার নির্বাচিত সদস্য, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদ শূন্য হওয়ায় এক বর্ধিত সভার মাধ্যমে সদস্য পদ থেকে যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয়। উক্ত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন ও দক্ষতার জন্য আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম তাকে পূনরায় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব প্রদান করেন।
শহিদুল ইসলাম শিকদার বলেন, আমি কৈশোর কাল থেকে রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। যেহেতু আমরা পারিবারিকভাবেই বাংলাদেশের শীর্ষ রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আওয়ামীলীগের অঙ্গ-সংগঠন বাংলাদেশ যুবলীগের দ্বারাই আমার রাজনীতি শুরু। রাজনীতি থেকে শুরু করে আজও পর্যন্ত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নীতি ও আদর্শ কে বুকে ধারন করে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত আছি। আওয়ামীলীগের রাজনীতি করবার কারনে আমি জীবনে বারবার বিএনপি জামাতের হামলা, বিভিন্ন নির্যাতন ও মামলার স্বীকার হয়েছি। বহুবার মৃত্যুর সম্মুখীন হয়েছি তবে কখনো প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে পিছপা হয়নি। আর যতদিন বাঁচবো আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথেই নিজেকে সম্পৃক্ত রাখবো। কারন, আওয়ামীলীগ যাকে নৌকা দিয়ে পাঠাবে তার সাথেই কাজ করবো। আমি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন একনিষ্ঠ কর্মী এবং বার বার নির্যাতিত কর্মী। আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নড়িয়া উপজেলা শাখার পূনরায় যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করায় আমাদের আস্থা ও ভরসার ঠিকানা, বাংলাদেশ সরকারের পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় উপমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অন্যতম সাবেক সফল সাংগঠনিক সম্পাদক, আমাদের শরীয়তপুর-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা এ কে এম এনামুল হক শামীম ভাই’কে হৃদয়ের হৃদয়স্পন্দন থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই জেলা আওয়ামীলীগ এবং নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের প্রতি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিলো বাংলাদেশ কে একটি ক্ষুধা মুক্ত দারিদ্র্য মুক্ত সোনার বাংলা গঠন করবে তারই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা এগিয়ে চলছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আমাদের সাংসদ এ কে এম এনামুল হক শামীম ভাইয়ের হাত কে শক্তিশালী করবার জন্য এবং নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করবার জন্য আমি সর্বদা আওয়ামীলীগের সাথে ছিলাম আছি এবং থাকবো।
শহিদুল ইসলাম শিকদার শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার ভোজশ্বর ইউনিয়নের পাচক গ্রামের শিকদার বংশের আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান। তাহার পিতা আলী আহম্মেদ শিকদার ভোজেশ্বর ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যান ও বর্তমান ভোজেশ্বর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের বারবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। তিনি ১৯৭৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। ব্যক্তিগতভাবে তিনি বিবাহিত। তার গ্রাজুয়েট স্ত্রী রুনা বেগম একজন আদর্শ গৃহিনী। তিনি একটি পূত্র সন্তান আহম্মেদ জাবের রোহান(১০) এবং এক কন্যা সন্তান মেহেজাবিন আহম্মেদ মম(৭) এর পিতা।

:: শেয়ার করুন ::

Comments

comments


সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  
ফেইসবুক পাতা

error: কপি করা নিষেধ!!