• ব্রেকিং নিউজ

    নড়িয়া জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তান ও বৃদ্ধ মাকে নির্যাতন

    রুদ্রবার্তা প্রতিবেদক

    প্রকাশিত: ২৮ মে ২০১৯ সময়: ৫:৪৪ অপরাহ্ণ 1534 বার

    নড়িয়া জমি সংক্রান্ত বিরোধে প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তান ও বৃদ্ধ মাকে নির্যাতন

    নড়িয়া উপজেলার নশাসনে জমি সংক্রান্ত বিরোধে দক্ষিন আফ্রিকা প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তান সহ তার মাকে মারধর করে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে।

    এ ঘটনায় প্রবাসী স্ত্রী নুপুর (৩০), মেয়ে ইভা (১৩), পুত্র ইব্রাহিম খলিল (৪) ও মা নুরজাহান বেগম (৬৫) আহত হয়েছে।

    গুরুতর আহত নুপুরকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

    নুপুর সদর হাসপাতালের মহিলা সার্জারী ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

    স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্র জানায়, নশাসন ইউনিয়নে সাওরা গ্রামের মৃত ফয়জল চোকদারের একমাত্র ছেলে কামাল চোকদার দীর্ঘদিন ধরে দক্ষিন আফ্রিকা প্রবাসে থাকে।

    এদিকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রবাসী কামাল চোকদারের পরিবারের সাথে জুলুম অত্যাচার করে আসছে তার চাচা শাজাহান চোকদার, হাকিম চোকদার ও তাদের পরিবার।

    শাজাহান চোকদার ও হাকিম চোকদারদের অত্যাচার ও নির্যাতনে শিকার প্রবাসী কামাল চোকদারের স্ত্রী শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অভিযোগ করে।

    পুলিশ সুপার বিষয়টি নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আইনগত ব্যবস্তা নেয়ার জন্য বলেন।

    নড়িয়া থানা পুলিশ বিষয়টির খোঁজ খবর নেয়ায় শাজাহান চোকদার ও তার পরিবার ক্ষিপ্ত হয়ে প্রবাসী কামাল চোকদারের স্ত্রী-সন্তান ও মায়ের প্রতি নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।

    অসহায় পরিবারটি নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ঘর-বাড়ি ফেলে পাশবর্তী শৌরপাড়া ইউনিয়নের মোস্তাফা খানের বাড়িতে আশ্রয় নেয়।

    ২৮ মে সকালে পরিত্যাক্ত বাড়ির খোঁজ খবর নিতে প্রবাসীর স্ত্রী নুপুর তার শ্বাশুরী ও সন্তানদের নিয়ে বাড়ি যায়।

    সংবাদ পেয়ে শাজাহান চোকদার, হাকিম চোকদার তার স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তান ও মায়ের উপর হামলা চালায়।

    এ হামলায় প্রবাসীর স্ত্রী নুপুর, মেয়ে ইভা, পুত্র ইব্রাহিম খলিল ও মা নুরজাহান আহত হয়েছে। গুরুতর আহত নুপুরকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

    অপর আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। আহত পরিবারের কোন পুরুষ সদস্য না থাকায় মোজাম্মেল নামে এক আত্মীয়কে দিয়ে লিখিত অভিযোগ নড়িয়া থানায় প্রেরণ করেছে।

    হাসপাতাল থেকে আহত নুপুর জানায়, আমার স্বামী প্রবাসে থাকে। সেই সুযোগে আমার চাচা শ্বশুর ও তার পরিবার আমাদের উপর অত্যাচর চালায়। তাদের নির্যাতনে আমরা বাড়িতেও থাকতে পারি না। অনেকদিন যাবত আমার দূর সম্পর্কের এক আত্মীয়ের বাড়িতে সন্তান ও বৃদ্ধা শ্বাশুরীকে নিয়ে থাকি। কিছুদিন পূর্বে বাড়ি দেখতে আসলে শাহজাহান চোকদার বলেছে তিন লাখ টাকা না দিলে বাড়িতে আসতে দিবে না। এ বিষয়ে আমি এসপি অফিসে অভিযোগ করেছি। অভিযোগের তদন্ত আসায় আমার উপর আরো ক্ষিপ্ত হয়।

    মঙ্গলবার সকালে আমি সন্তান ও শ্বাশুরীকে নিয়ে বাড়ি দেখতে যাই। সংবাদ পেয়ে শাজাহান চোকদার তার ভাই-ভাতিজা, স্ত্রী-সন্তান নিয়ে আমাদের উপর হামলা করে। আমার সাথে থাকা স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়।

    নড়িয়া থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বলেন, জমিজমা সংক্রান্তে দুই পরিবারের মধ্যে দীর্ঘ দিনের সমস্যা। আজকের ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের সত্যতা যাচাই করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

    :: শেয়ার করুন ::

    Comments

    comments

    সংবাদটি ফেইসবুকে শেয়ার করুন

    দৈনিক রুদ্রবার্তা/শরীয়তপুর/২৮ মে ২০১৯/


    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত


    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক রুদ্রবার্তা

  • error: নিউজ কপি করা নিষেধ!!