সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ ইং, ১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ ইং

বঙ্গবন্ধু’র জন্মশতবার্ষিকীতে জেড. এইচ. সি. বি. প্র. বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রদ্ধাঞ্জলি

বঙ্গবন্ধু’র জন্মশতবার্ষিকীতে জেড. এইচ. সি. বি. প্র. বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রদ্ধাঞ্জলি
বঙ্গবন্ধু’র জন্মশতবার্ষিকীতে জেড. এইচ. সি. বি. প্র. বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রদ্ধাঞ্জলি

১৭ মার্চ মঙ্গলবার বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০০ তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে শরীয়তপুরের জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা এবং দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেড. এইচ. সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক মোঃ অহেদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোঃ আমিনুল হক ভূইয়া।
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্বরণ করে প্রধান অতিথি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হত না। তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও তার বাস্তব প্রয়োগ বিষয়ে আলোকপাত করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে আজ বাংলাদেশের যে উন্নয়ন হচ্ছে তার পেছনে সবচেয়ে বড় প্রেরণা ও শক্তি হচ্ছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক আদর্শ ও দেশ প্রেমিক সাহসী চেতনা। তিনি বর্তমান প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর কর্ম ও আদর্শকে ধারণ করে দেশ ও সমাজের উন্নয়নের লক্ষ্যে সঠিক নের্তৃত্ব গড়ার আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, মানবসম্পদ গড়ে তুলতে শিক্ষাক্ষেত্রে উন্নয়ন দরকার, আর এসবের জন্য বঙ্গবন্ধু সবসময় গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি উল্লেখ করেন বর্তমান সরকারের আমলে দেশ অনেক এগিয়ে গেছে এবং যাবে। তিনি সিকদার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে করে বলেন যে তাদের অনেকেই আগামীতে দেশ পরিচালনায় আসবে।
আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন দিক যেমন রাজনৈতিক সংগ্রাম, দেশ পরিচালনা, কারাগারের সময়কাল এবং আর্তমানবতার সেবা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য রাখেন সিকদার বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন মোঃ এমরান পারভেজ খান, পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মিজানুজ্জামান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মাহরুফ হোসেন, মোঃ অহেদুজ্জামান, সহকারী রেজিস্ট্রার খন্দকার তাহমিনা নিষাদ এলিন সহ সকল বিভাগীয় প্রধানগণ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল প্রাঙ্গণ আলোকসজ্জিত করা হয়।