Wednesday 17th April 2024
Wednesday 17th April 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

চিরনিদ্রায় শায়িত গোলাম সারওয়ার

চিরনিদ্রায় শায়িত গোলাম সারওয়ার

বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় শেষ বিদায় নিয়েছেন সাংবাদিকতার বাতিঘর গোলাম সারওয়ার। মহাকালের পথযাত্রায় চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন মিরপুরের বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে। জাতির উজ্জ্বল সব নক্ষত্র শুয়ে আছেন সেখানে। বৃহস্পতিবার জাতির আরেক সূর্যসন্তান গোলাম সারওয়ারও তাদের মধ্যে ঠাঁই নেন।

দাফনের আগে সন্তান, স্বজন, সহকর্মী, সুহৃদরা শেষ শ্রদ্ধা জানান সাংবাদিক সমাজের শিক্ষকখ্যাত গোলাম সারওয়ারের প্রতি। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মন্ত্রিসভার সদস্য, এমপি, রাজনীতিক, ঊর্ধ্বতন সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, শিক্ষক, কবি-সাহিত্যিকসহ সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানান তার অন্তিম যাত্রায়। রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানো হয় রণাঙ্গনের এই মুক্তিযোদ্ধার প্রতি।

গত সোমবার সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার। মঙ্গলবার রাতে দেশে ফেরে তার নিথর দেহ। বুধবার জন্মস্থান বরিশালের বানারীপাড়া ঘুরে বৃহস্পতিবার সকালে শেষবারের মতো তিনি আসেন প্রিয় কর্মস্থল সমকালে।

দীর্ঘদিনের ও শেষ কর্মস্থল সমকাল চত্বরে গোলাম সারওয়ারের মরদেহ এলে অভিভাবক হারানো সহকর্মীদের আহজারিতে ভারি হয়ে ওঠে পরিবেশ। সমকাল প্রকাশক এ. কে. আজাদ, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি, নির্বাহী পরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) এস এম শাহাব উদ্দিনসহ অন্য সহকর্মীরা তার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। অন্য প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিকরাও আসেন তাকে শ্রদ্ধা জানাতে। এর পর সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণে তার তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয় টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে। সেখান থেকে তার মরদেহ নেওয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

সেখানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় সর্বস্তরের মানুষ শেষ শ্রদ্ধা জানান এই কিংবদন্তিকে। গোলাম সারওয়ারের কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, মহিলা ও শিশু প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

প্রিয় ছাত্র গোলাম সারওয়ারকে বিদায় জানাতে আসেন সর্বজনশ্রদ্ধেয় ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, পরিবেশ ও বন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন আওয়ামী লীগের পক্ষে সমকাল সম্পাদককে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

শহীদ মিনার থেকে সমকাল সম্পাদকের মরদেহ নেওয়া হয় তার পাঁচ দশকের আড্ডাস্থল জাতীয় প্রেস ক্লাবে। প্রেস ক্লাব চত্বরে তার চতুর্থ জানাজার পর রাষ্ট্রপতির পক্ষে তার সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মো. সারোয়ার হোসেন শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তার তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, প্রেস সচিব এহসানুল করিম, উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন কফিনে। দেওয়া হয় গার্ড অব অনার। তখন জাতীয় পতাকায় আচ্ছাদিত করা হয় তার কফিন।
পরে একে একে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, বিএনপির পক্ষে আবদুল্লাহ আল নোমান, খায়রুল কবীর খোকন, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সম্পাদক পরিষদের পক্ষে সভাপতি মাহফুজ আনাম, সাইফুল আলম, শ্যামল দত্ত ও নইম নিজাম।
এর আগে শহীদ মিনারে প্রয়াত গোলাম সারওয়ারের প্রতি শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী, কবি কাজী রোজী এমপি, জনপ্রশাসন সচিব ফয়েজ আহম্মেদ, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার, অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, অধ্যাপক ডা. রফিকুল আলম, রেজিস্ট্রার এ বি এম আবদুল হান্নান, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব, কবি ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, নৌ-পুলিশ ডিআইজি শেখ মুহম্মদ মারুফ হাসান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবদুল কালাম আজাদ, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ্‌ চৌধুরী প্রমুখ।

প্রিয় ছাত্রকে বিদায় জানিয়ে সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের শিক্ষক অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, শিক্ষকের সামনে ছাত্রের মরদেহ অনেক বেশি বেদনার। সাংবাদিকতা জগতে গোলাম সারওয়ারের দীপ্ত পদচারণা তাকে শিক্ষক হিসেবে গর্বিত করেছে। তিনি আজীবন সৎ সাংবাদিকতা করেছেন। সাংবাদিকতা জগতে তার নাম স্থায়ী হয়ে থাকবে।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, গোলাম সারওয়ার ছিলেন বাতিঘর, যে বাতিঘর কখনও নিভে যাবে না। বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, সাংবাদিকতার নৈতিকতা বিকাশে তিনি ছিলেন সোচ্চার ও বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, গোলাম সারওয়ার তার সমবয়সী, বন্ধু। বন্ধুর বিদায় তাকেও ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, গোলাম সারওয়ার ছিলেন তার রাজনৈতিক জীবনের ভরসা। তিনি তার প্রশংসা করতেন, তেমনি সমালোচনাও করেছেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধুর প্রশ্নে গোলাম সারওয়ার ছিলেন আপসহীন। কিন্তু সব আদর্শের মানুষের কাছেই গ্রহণযোগ্য ছিলেন। তার লেখায় জাদু ছিল। খবরের জাদুকর তিনি। তার বিদায় নিঃস্ব করে দিয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, সন্ত্রাস, জঙ্গি ও সাম্প্রদায়িকতামুক্ত গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়তে গোলাম সারওয়ারের বড় দরকার ছিল। তিনি ছিলেন গণমাধ্যমের অভিভাবক।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, সাংবাদিক জগতের কিংবদন্তি গোলাম সারওয়ার সামাজিক ও শিক্ষা খাতেও যুক্ত ছিলেন।

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, গোলাম সারওয়ার মানুষের কথা শুনতেন, বলতেন। মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে সব সময় কলম ধরেছেন। তার মৃত্যুতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেল।

সমকালের প্রকাশক এ. কে. আজাদ বলেন, দীর্ঘ পাঁচ দশকের সাংবাদিক জীবনে গোলাম সারওয়ার অন্যায়-অবিচারের বিপক্ষে কলম ধরেছেন। তার হাত ধরে বহু সাংবাদিক তৈরি হয়েছে। তিনি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে নিবেদিত ছিলেন। ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবেন তিনি।

সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি বলেন, ব্যক্তি গোলাম সারওয়ার বিদায় নিয়েছেন। তিনি ‘বাতিঘর’। যে আলো তিনি ছড়িয়ে গেছেন, তা নিভবে না। সেই আলোর পথে চলবে সমকাল।

শহীদ মিনারে সমকালের প্রয়াত সম্পাদকের প্রতি আরও শ্রদ্ধা জানান নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার, উন্নয়নকর্মী খুশী কবির, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক, নাট্যজন আতাউর রহমান, অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে গোলাম সারওয়ারের প্রতি বিদায়ী শ্রদ্ধা জানান তার সহকর্মী সাংবাদিকরা। শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহ্‌ আলমগীর, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহম্মদ শফিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল ও মহাসচিব শাবান মাহমুদ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, বিএফইউজের অপরাংশের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ডিইউজের অপরাংশের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শুকুর আলী শুভ, প্রথম আলোর পক্ষে যুগ্ম সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম, একুশে টিভির প্রধান নির্বাহী মনজুরুল আহসান বুলবুল, প্রকাশিতব্য দৈনিক জাগরণ সম্পাদক আবেদ খান, দৈনিক সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক খোন্দকার মুনীরুজ্জামান, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক স্বপন সাহা, সহ-সভাপতি আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার প্রমুখ।

শ্রদ্ধা জানায় প্রথম আলো, ইত্তেফাক, আমাদের সময়, ডেসটিনি, ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, ঢাকা সাব এডিটরস কাউন্সিল, ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম, চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি, নারী সাংবাদিক কেন্দ্র, নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম, চট্টগ্রাম জার্নালিস্ট ফোরাম, স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা বিভাগীয় সাংবাদিক সমিতি, খুলনা বিভাগীয় সাংবাদিক ফোরাম, মুন্সীগঞ্জ সাংবাদিক ফোরাম, একতা কালচারাল সোসাইটি, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন।

এর আগে শহীদ মিনারে সমকাল সম্পাদকের প্রতি শ্রদ্ধা জানান- সাধারণ সম্পাদক শিরিন আক্তার এমপির নেতৃত্বে জাসদ, নাজমুল হক প্রধানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাসদ, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদের নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হকের নেতৃত্বে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, কেন্দ্রীয় নেতা বজলুর রশিদ ফিরোজের নেতৃত্বে বাসদ, যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. অসিত বরণ রায়ের নেতৃত্বে কমিউনিস্ট কেন্দ্র, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, আরটিভি, মাই টিভি, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন, বঙ্গবন্ধু মহিলা পরিষদ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, বার কাউন্সিলের পক্ষে অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ূন ও অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট, খেলাঘর আসর, সমকাল সুহৃদ সমাবেশ, ড. এম এ ওয়াজেদ মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন, যুবলীগ, জাতীয় জাদুঘর, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, ফ্রিডম ফাউন্ডেশন, শিল্পকলা একাডেমি, বাংলা একাডেমি, সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, সভাপতি এ. কে. আজাদ ও মহাসচিব রঞ্জন কর্মকারের নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলমের নেতৃত্বে সিপিবি, শিশু একাডেমি, জাতীয় প্রেস কাউন্সিল, ছাত্র মৈত্রী, সাপ্তাহিক পত্রিকা সাংবাদিক পরিষদ, জাতীয় কবিতা পরিষদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, নাট্যজন ম. হামিদ ও শংকর সাঁওজাল, গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বিজিএমইএ, বরিশাল বিভাগীয় জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, স্বভূমি লেখক শিল্পী কেন্দ্র, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন, এটাব, পিআইবি, আনন ফাউন্ডেশন, বহ্নিশিখা, পীযূষ বন্দোপাধ্যায়, চ্যানেল টোয়েন্টিফোর, এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ইরাব), পাসপোর্ট অ্যান্ড ইমিগ্রেশন রিপোর্টার্স ফোরাম (পিআইআরএফ), পথনাটক পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক সংগঠন ও ব্যক্তিরা।

কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করার পাশাপাশি গোলাম সারওয়ারের বড় ছেলে গোলাম শাহরিয়ার রঞ্জু বলেন, তার বাবা জীবনের চারটি অধ্যায়; সমকাল, প্রেস ক্লাব, পরিবার ও বানারীপাড়া। তিনি এ চারটি অধ্যায়কে সমান চোখে দেখতেন। তিনি কখনও কাউকে না করতে পারতেন না। গরিব-দুখী মানুষের পাশে দাঁড়াতেন। একটি সুন্দর বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখতেন।

এর আগে সকালে সমকাল কার্যালয়ে গোলাম সারওয়ারের মরদেহ আনা হলে শ্রদ্ধা জানান টাইমস মিডিয়া লিমিডেটের নির্বাহী পরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) এস এম শাহাব উদ্দিন, সমকালের উপ-সম্পাদক অজয় দাশগুপ্ত ও আবু সাঈদ খান, সহযোগী সম্পাদক সবুজ ইউনুস, বার্তা সম্পাদক মশিউর রহমান টিপু, অতিরিক্ত বার্তা সম্পাদক তপন দাশ, নগর সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী, প্রধান প্রতিবেদক লোটন একরাম, ফিচার সম্পাদক মাহবুব আজীজ, জিএম (বিজ্ঞাপন) ফরিদুল ইসলাম, জিএম (সার্কুলেশন) হারুন অর রশিদসহ সমকাল পরিবারের সর্বস্তরের কর্মীরা।

গোলাম সারওয়ারের ছোট ভাই গোলাম সালেহ মঞ্জু, জ্যেষ্ঠ পুত্র গোলাম শাহরিয়ার রঞ্জু, জামাতা মিয়া নাইম হাবিবসহ এসময় পরিবারের অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা জানাতে আসেন চ্যানেল আইয়ের পরিচালক (বার্তা) শাইখ সিরাজ, প্রধান বার্তা সম্পাদক জাহিদ নেওয়াজ খান, টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, নাক কান গলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মাহমুদুল হাসান, ইনস্টিটিউট শাখা স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. জাকারিয়া সরকার, সাধারণ সম্পাদক ডা. মানস রঞ্জন সরকার এবং রেজিস্ট্রার ড. মো. মিজানুর রহমান, শাহ্‌জালাল ইসলামী ব্যাংকের কর্মকর্তা কে এম হারুনর রশীদ, টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি নাজমুল আলম সাকিব।

এ ছাড়া ঢাকা সংবাদ হকার্স বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি মোস্তফা কামাল, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান, বাংলাদেশ সংবাদপত্র হকার্স কল্যাণ বহুমুখী সমবায় সমিতির উপদেষ্টা মো. সারোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হাজি জালাল আহম্মদ জিহাদীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ সমকাল সম্পাদককে শেষ শ্রদ্ধা জানান।
শবরেণ্য সাংবাদিক ও সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের আত্মার মাগফিরাত কামনায় শুক্রবার ও আগামীকাল শনিবার দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার বাদ আসর পরিবারের পক্ষ থেকে উত্তরা চার নম্বর সেক্টর জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার বাদ আসর সমকালের উদ্যোগে পত্রিকাটির নতুন কার্যালয়ে আরেকটি দোয়া মাহফিল হবে।

গত ২৯ জুলাই অসুস্থ হয়ে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হন ৭৫ বছর বয়সী সম্পাদক গোলাম সারওয়ার। অবস্থার অবনতি হলে গত ৩ আগস্ট সিঙ্গাপুর নেওয়া হয় তাকে। গত ১৩ আগস্ট সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন একুশে পদকপ্রাপ্ত এই সাংবাদিক।