Thursday 30th May 2024
Thursday 30th May 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত: এফবিজেও চেয়ারম্যান

সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত: এফবিজেও চেয়ারম্যান

ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশন এফবিজেও চেয়ারম্যান এসএম মোরশেদ বলেছেন, সাংবাদিকদের নিরাপত্তা ও অধিকার রক্ষায় সরকারকে এখনই ভাবা উচিত। আর এই ভাবনার এখনই সময়। দেশ গঠনের পর থেকেই সাংবাদিকরা নির্যাতিত-নিষ্পেষিত হয়ে আসছে। এ নিয়ে ধীরে ধীরে পুঞ্জিভুত ক্ষোভের বহি:প্রকাশও ঘটতে শুরু করেছে। শাহবাগে অনশন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে সারাদেশের সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ হতে শুরু করেছে। তাই সাংবাদিকদের অধিকার এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সকল সাংবাদিক হত্যার বিচারের এখনই সময়।
বুধবার ৫ সেপ্টেম্বর শাহবাগ চত্বরে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশন এফবিজেও আয়োজিত মানববন্ধন ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এ সময় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর তার বক্তব্যে বলেন, দেশে স্বাধীনতা পরবর্তী ৩৯ জন সাংবাদিক পেশাগত কাজ করতে গিয়ে হত্যার শিকার হয়েছেন। সাংবাদিক হত্যার বিচারহীনতার সংস্কৃতি দেশে চলমান থাকায় এ দেশের সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতার মাঝে কাজ করছে। এই বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে দেশকে বেরিয়ে আসতে হবে। তাই স্বাধীনতা পরবর্তী সাংবাদিক হত্যাকান্ডের ৩/৪ জন সাংবাদিক হত্যার নামমাত্র বিচার হলেও বাকি হত্যাকান্ডগুলোর বিচার কিংবা আদালতে চার্জশীট আজ পর্যন্ত দেয়া হয়নি। যেমন যশোরের দৈনিক রানার পত্রিকার সম্পাদক মুকুল রানা হত্যাকান্ড গত ৩০ আগস্ট ২০ বছর পেরিয়ে গেলেও বিচার হয়নি। তেমনি বিএমএসএফ রংপুর জেলা কমিটির সদস্য সচিব মশিউর রহমান উৎসকে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর রাতে কর্মস্থল থেকে ফেরার পথে সন্ত্রাসীরা এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে। আজো চার্জশীট মেলেনি। তেমনি সাগর-রুনি হত্যাকান্ড। নতুন এই মিছিলে যোগ দিয়েছে নদী হত্যাকান্ড। অবিলম্বে এই সকল হত্যাকান্ডের মামলাগুলোকে দ্রুতবিচার আইনে বিচারিক আদালতে নিস্পত্তির জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানাচ্ছি। এছাড়াও সারাদেশে বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদেরকে হয়রাণী, নির্যাতন, মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর ঘটনাগুলোকে সরকার আমলে নিয়ে সরকার সাংবাদিকদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করে সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন করা হবে বলে বিএমএসএফ আশা করে।
সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ফেডারেশনের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার চেয়ারম্যান লায়ন নুরুল ইসলাম, বাংলাদেশ অনলাইন গণমাধ্যম এসোসিয়েশন চেয়ারম্যান কাজী ফারুক, বিএমএসএফ’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হাবিব সরোয়ার আজাদ, দৈনিক মাতৃছায়া প্রকাশক এমএ মোতালেব, জুরাইন প্রেসক্লাব সভাপতি সোহেল রানা ও কামাল হোসেন প্রমুখ।
সমাবেশে সারাদেশ থেকে আসা বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।