Thursday 25th July 2024
Thursday 25th July 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

শরীয়তপুরের চন্দ্রপুর শোক সভায় আ’লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ

শরীয়তপুরের চন্দ্রপুর শোক সভায় আ’লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ

শরীয়তপুরের চন্দ্রপুরে বঙ্গবন্ধুর শোক সভায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
শুক্রবার (২৪ আগষ্ট) দুপুরে সদর উপজেলার চন্দ্রপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মকবুল জমাদ্দার ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মেহেদী জামিল গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, চন্দ্রপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম ইউনুস হাওলাদারের সভাপতিত্বে চন্দ্রপুর স্কুল মাঠে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে মঞ্চে ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শরীয়তপুর-১ আসনের সাংসদ বিএম মোজাম্মেল হক এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে মঞ্চে ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মির্জা হজরত আলী ও নুরুল আমিন কোতোয়াল, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর হোসেন হাওলাদার ও মেহেদী জামিল প্রমূখ।
এ সময় মকবুল জমাদ্দারের নেতৃত্বে একটি মিছিল সভাস্থলে প্রবেশ করলে মেহেদী জামিল গ্রুপের লোকজন মিছিলকারীদের ওপর হামলা চালায় এবং তাদের ব্যানার ছিনিয়ে নেয়। এতে উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, চেয়ার ছোড়াছুড়ি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে মকবুল জমাদ্দার বলেন, আমাদের মিছিলের ব্যানারে মেহেদী জামিলের ছবি না দেওয়ায় মেহেদী জামিলের লোকজন আমাদের ওপর অতর্কিত অতর্কিত চালায়। পরে দুই পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় কেউ গুরুতর আহত হয়নি।
এ বিষয়ে মেহেদী জামিল বলেন, শোক সভায় সংঘর্ষের কোন ঘটনা ঘটেনি। শোক সভায় বিঘœ সৃষ্টি হওয়ায় আমার লোকজন শুধু মিছিলকারীদের শ্লোগান বন্ধ করতে বলেছিলেন।
পরে মোজাম্মেল হক এমপি তার বক্তব্যে বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শোক সভায় বিশৃঙ্খলা মেনে নেয়া হবে না। যারা এ ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।