বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই সফর, ১৪৪২ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিন : নাহিম রাজ্জাক এমপি

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিন : নাহিম রাজ্জাক এমপি

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে শরীয়তপুর-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক এমপি তার নির্বাচনী এলাকা গোসাইরহাট, ডামুড্যা ও ভেদরগঞ্জে তৃর্নমূল পর্যায়ের আঃ লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ,স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও মহিলা আওয়ামীলীগের নেতা/কর্মীদের সাথে গত ২০শে আগষ্ট থেকে ২৭ আগষ্ট পর্যন্ত ২৪টি পথসভা ও ০৭টি মতবিনিময় সভায় যোগদান করে বলেন, প্রত্যেকটি উপজেলা মডেল উপজেলায় পরিষদ ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। নাহিম রাজ্জাক বলেন, প্রত্যেক উপজেলা হাসপাতালকে ৩১শয্যার পরির্বতে ৫০শয্যা করা হচ্ছে। দক্ষিণ বাংলার ২১ জেলার মানুষের স্বপ্নের সেতু পদ্মা সেতুর কাজ প্রায় ৫৭ভাগ শেষ হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বর্তমানে প্রায় ১৭শ মার্কিন ডলার। আপনারা যদি আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আঃ লীগকে ক্ষমতায় আনতে পারেন তাহলে বাংলাদেশ অল্প সময়ের মধ্যে সিঙ্গাপুর ও মালেয়েশিয়া কে ছাড়িয়ে যাবে। তাই আসুন আমরা দল মত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালি করতে নৌকা মার্কার পক্ষে কাজ করে যাই। নাহিম রাজ্জাক এমপি গত ৮ বছরে তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ করেছেন। তার প্রয়ত পিতা আব্দুর রাজ্জাক আজীবন মানুষের কল্যাণে সৎ পথে থেকে কাজ করে গেছেন। শরীয়তপুরবাসীর অন্তরে আব্দুর রাজ্জাক। এ অবহেলিত শরীয়তপুর জেলায় মাত্র দেড় কিঃ মিঃ পাকা রাস্তা ছিল শুধু সদর শরীয়তপুরে। বর্তমানে শরীয়তপুরে এমন কোন স্থান নেই, যেখানে পাকা রাস্তা নেই, বিদ্যুৎ নেই, এই জেলার সকল প্রকার উন্নয়নের রুপকার আব্দুর রাজ্জাক। তার মৃত্যুর পর তার সন্তান নাহিম রাজ্জাক শক্তহাতে হাল ধরেছেন। আব্দুর রাজ্জাকের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে এলাকায় কাজ করছেন। নাহিম রাজ্জাক একজন সৎ, ন¤্র, ভদ্র ও উচ্চ শিক্ষিত মানুষ রাগ বলতে তার কিছুই নেই। সবসময় হাসি খুশী থেকে নেতাকর্মীদের সাথে কাজ করছেন। তিনি গত ৮বছর যাবতই তৃর্নমূল পর্যায়ের নেতা/কর্মীদের সাথে নিভীরভাবে এলাকার উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি প্রতি সপ্তাহে তার নির্বাচনী এলাকায় এসে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়েছেন। বিশেষ করে নাহিম রাজ্জাকের নির্বাচনী এলাকার প্রায় অর্ধেক অংশ শুধুই চর আর চর, বালু আর বালু। ১৯৯৬ সনে আঃ লীগ ক্ষমতায় এলে আব্দুর রাজ্জাক পানিসম্পদ মন্ত্রীর দায়িত্ব পান। তিনি ক্ষমতায় এসেই চর এলকায় ব্যাপক উন্ন্য়ন করেন। তার পর নাহিম রাজ্জাক এমপি হয়ে প্রায় ৩২কোটি টাকা ব্যয়ে সাইখ্যা ব্রীজ নির্মাণ করেছেন। এখন সে বালুচর আর চর নেই। দেখলে মনে হয়, এটা একটি জেলা শহর। শরীয়তপুর-৩ আসনে ১৯টি ইউনিয়ন ও ৩টি পৌরসভা রয়েছে সকল পর্যায়ের নেতা/কর্মীরা নাহিম রাজ্জাকের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থেকে নৌকার বিজয়ের পক্ষে কাজ করে যাচ্ছেন। নাহিম রাজ্জাক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে একটি দুর্নীতি মুক্ত উন্নত দেশ হিসেবে গড়ার লক্ষ্যে সারা বাংলায় যে উন্নয়ন হচ্ছে, তারই ধারাবাহিকতায় মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই আমি আমার নির্বাচনী এলাকা শরীয়তপুর-৩ গোসাইরহাট,ডামুড্যা ও ভেদরগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছি। আমি দুর্নীতি মুক্ত ও ন্যায় পথে থেকে আজীবন মানুষের কল্যানে কাজ করে যাবো। পথসভা ও মতবিনিময় সভায় নাহিম রাজ্জাকের সাথে উপস্থিত ছিলেন, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নাসির উদ্দিন, ডামুড্যা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আলমগীর হোসেন মাঝি, ডামুড্যা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভপতি মাস্টার কামাল উদ্দিন আহমেদ, গোসাইরহাট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি (ভারঃ) আহসান সিদ্দিকী লাবু, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দেওয়ান মোঃ শাহজাহান, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ মোঃ আবুল খায়ের, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তফা কামাল ফরাজীসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের উপজেলা পর্যায়ের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।