শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা

শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা
শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দি‌কে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক ও করোনা প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভাপতি কাজী আবু তা‌হের স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে এ ঘোষণা দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লকডাউন বলবৎ থাকবে বলে উল্লেখ করা হয়।

শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তা‌হের বলেন, বুধবার করোনা প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির এক সভা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলার কমিটির সভায় সিদ্ধান্তের আলোকে শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। যা বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী সিদ্ধান্ত না দেয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে।

তিনি আরও বলেন, বুধবার থেকে এ জেলায় জনসাধারণের প্রবেশ ও প্রস্থান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত জাতীয় ও আঞ্চলিক সড়ক-মহাসড়ক ও নৌ-পথে অন্য কোনো জেলা থেকে কেউ এ জেলায় প্রবেশ করতে কিংবা এ জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে পারবেন না। জেলার অভ্যন্তরে আন্তঃ উপজেলায় যাতায়াতের ক্ষেত্রেও একই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

জেলা ও উপজেলার যেকোনো সীমানা দিয়ে যানবাহনের প্রবেশ ও প্রস্থান বন্ধ থাকবে। সকল ধরনের গণপরিবহন ও জনসমাগম বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিসেবা, চিকিৎসা সেবা, খাদ্যদ্রব্য সরবরাহ ও সংগ্রহ লকডাউনের আওতার বাইরে থাকবে। এসব আদেশ অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, শরীয়তপু‌রে সর্বমোট ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হ‌য়ে‌ছে। এর ম‌ধ্যে ৪৬ জনের নেগেটিভ এবং গত ১৩ এপ্রিল চারজনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। গত ৪ এপ্রিল সকাল ১০টায় শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ৯০ বছরের এক বৃদ্ধ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ঢাকায় মারা গে‌ছেন। এ অবস্থায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলায় শরীয়তপুর জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তা‌হের গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।


error: Content is protected !!