মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরী
মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং

প্রবাসীর স্ত্রীর অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল করায় যুবক আটক

প্রবাসীর স্ত্রীর অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল করায় যুবক আটক

প্রবাসীর স্ত্রীর অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে মোঃ আনোয়ার হোসেন কালু (৩৩) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাজীব ফরহান এর নেতৃত্বে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) দুপুর দেড় টায় শরীয়তপুর জেলার পালং থানাধীন রূপনগর বাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত মোঃ আনোয়ার হোসেন কালু’কে গ্রেফতার করে।

আটককৃত মোঃ আনোয়ার হোসেন কালু পালং থানাধীন চর পালং গ্রামের মৃত সালাহ ঊদ্দিন চৌকিদারের ছেলে।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায় যে, ভিকটিমের সাথে অভিযুক্ত মোঃ আনোয়ার হোসেন কালুর ফোন আলাপের মাধ্যমে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। উক্ত সম্পর্কের জের ধরে আসামী ফুসলিয়ে ফাসলিয়ে ভিকটিমকে অন্তরঙ্গ হতে বাধ্য করে এবং সে সুপরিকল্পিত ভাবে কৌঁশলে তার মোবাইল ফোনে অন্তরঙ্গ মুহুর্তের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারন করে। অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেন কালু গত ২৬-০২-২০২১ইং তারিখ সকাল ১০ টায় ভিকটিমের ভাড়া বাসায় এসে ভিকটিমকে প্রেমের সম্পর্কের প্রলোভন দিয়ে কৌঁশলে উলঙ্গ করে অভিযুক্তের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ভিকটিমকে জড়িয়ে ধরে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারন করে। ভিকটিম অশ্লীল ছবি ও ভিডিও’র বিষয়ে কাউকে কিছু বললে অথবা পুলিশের নিকট অভিযোগ দায়ের করলে মোবাইলে ধারণকৃত অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেবে বলে বারবার ভিকটিমকে হুমকি দিতে থাকে। এছাড়াও ভিকটিম অভিযুক্তের কথামত রাজি না হওয়ায় অভিযুক্ত তার মোবাইল ফোনে ধারনকৃত অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভিকটিমের আত্মীয়স্বনের নিকট ছড়িয়ে দেয়। এরপর আসামী ভুক্তভোগী নারীকে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য বারবার চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। উক্ত ঘটনা হতে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য ভিকটিম র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর ক্যাম্পের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন। তদপ্রেক্ষিতে র‌্যাব-৮ এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাজীব ফরহান এর নেতৃত্বে ২৩ মার্চ দুপুর দেড় টার সময় অভিযুক্ত মোঃ আনোয়ার হোসেন কালুকে শরীয়তপুর জেলার পালং থানাধীন রূপনগর বাজারস্থ ধৃত আসামী মোঃ আনোয়ার হোসেন কালু এর মালিকানাধীন মেসার্স আনিকা আধুনিক ফার্নিচার নামক দোকানের ভিতর হতে গ্রেফতার করে।

আটককৃত আসামী মোঃ আনোয়ার হোসেন কালু’কে জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, সে সুপরিকল্পিত ভাবে কৌঁশলে ভিকটিমের সরলতার সুযোগ নিয়ে মোবাইল ফোনে অন্তরঙ্গ মুহুর্তের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারন করে এবং সেগুলো অভিযুক্ত নিজেই ভিকটিমের বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের নিকট ইন্টানেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।

এ সময় অভিযুক্তের স্বীকারোক্তি মতে তার নিকট হতে ২ টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

আটককৃত আসামীকে উদ্ধারকৃত মোবাইলসহ শরীয়তপুর জেলার পালং থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। উক্ত ঘটনার বিষয়ে ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে শরীয়তপুর জেলার পালং থানায় একটি মামলা দায়ের করনে।

র‌্যাব-৮ এর এ ধরনের কার্যক্রম ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।