মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরী
মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং

শরীয়তপুরে লকডাউনের প্রথম দিনে প্রশাসন তৎপর

শরীয়তপুরে লকডাউনের প্রথম দিনে প্রশাসন তৎপর

মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকার ঘোষিত এক সপ্তাহের লকডাউনের প্রথম দিনে শরীয়তপুরে বাস বন্ধ থাকলেও বিচ্ছিন্ন ভাবে ইজিবাইক, আটোরিক্সাসহ বিভিন্ন রকমের যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে।

সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল থেকে শহরের প্রধান প্রধান সড়কসহ বিভিন্ন সড়কে ইজিবাইক ও আটো রিক্সা চলাচল করতে দেখা যায়। তাছাড়া শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে জনাসমাগম দেখা যায়।

লকডাউনে বাড়ি থেকে কেন বের হয়েছেন এমন প্রশ্নের উত্তরে, কেউ অফিসে, কেউ বাজারে, কেউবা হাসপাতাল আবার কেউবা লকডাউন কেমন চলছে তা দেখতে বের হওয়াসহ নানা প্রয়োজনের কথা বলেন।

এদিকে শহরের অধিকাংশ মোড়ে চায়ের দোকান খোলা রাখা হয়েছে। সেখানে বিভিন্ন বয়সের মানুষকে চায়ের আড্ডা দিতে দেখা গেছে।

মহামারী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে বিভিন্ন এলাকায় জনসচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনদীপ ঘড়াই।

এদিকে শহরে মাইকিং করে জনসচেতন করেছেন পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন। এছাড়া শহরে পুলিশকে টহল দিতে দেখা গেছে।

সরকারের দেওয়া লকডাউনের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া (ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদি) কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। কাঁচাবাজার এবং নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেচা-কেনা করা যাবে। বাজার কর্তৃপক্ষ/স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন জায়গায় সচেতনতামূলক কার্যক্রম অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।