বৃহস্পতিবার, ৬ই মে, ২০২১ ইং, ২৩শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে রমজান, ১৪৪২ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ৬ই মে, ২০২১ ইং

ভেদরগঞ্জের সখিপুর ২টি ঘর আগুনে পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

ভেদরগঞ্জের সখিপুর ২টি ঘর আগুনে পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ

শরীয়তপুরে ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার পূর্বশত্রুতার জের ধরে হানিফ প্রামানিক নামের এক ব্যক্তির অস্ট্রেলিয়ান গর্ভবতী গাভীকে পিটিয়ে মেরে ফেলা ও ২ টি কাচারি ঘরে আগুন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মন্টু হাওলাদারের বিরুদ্ধে ।

৯ এপ্রিল (শুক্রুবার)রাতে উপজেলার চরভাগা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম মনাই হাওলাদারের কান্দি এ ঘটনা ঘটে। হানিফ প্রামানিক হল মৃত হযরত আলীর ছেলে। এঘটনায় সখিপুর থানায় ২টি সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হানিফ প্রামানিক ও তার স্ত্রী হাসনেয়ারা বলেন,আমরা গরিব কৃষক। বাচার মতো শেষ ভরশা ছিলো একটি গাভী তাও চলে গেলো। মন্টু হাওলাদার তার ক্ষেতে আমাদের বাছুর গিয়েছে বলে গরুটাকে পিটিয়েছে।পরে বাড়িতে আনার পরে গরুটি মারা যায়। এর একদিন পরেই কে বা কাহারা রাত ২টার সময় আমাদের কাচারি ঘরে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। আগুন দেখতে পেয়ে আমরা মটরের মাধ্যমে পানি দিয়ে আগুন নিভাই। নিভাতে ন। পারলে আমাদের বাড়ির সবগুলো ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যেত। আমার সব মিলিয়ে ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমরা সখিপুর থানায় মন্টু হাওলাদারের বিরুদ্ধে ২ টি অভিযোগ করেছি। আমরা এই ঘটনার সঠিক বিচার চাই।
এব্যাপারে মন্টু হাওলাদারের বাড়িতে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

সখিপুর থানার উপ-পরিদর্শক আতিউর রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমরা যাই। এ বিষয়ে ঘর পুড়ানো ও গরু মেরে ফেলার ২ টি অভিযোগ পেয়েছি। এবং মরা গরুর নমুনা সংগ্রহ করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।
তদন্ত সাপেক্ষ্য আইনিব্যবস্থা নেওয়া হবে।