মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

ভেদরগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধাকে রড দিয়ে পিটিয়ে জখম

ভেদরগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধাকে রড দিয়ে পিটিয়ে জখম

রুদ্রবার্তা প্রতিবেদক ॥ শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নূর মোহাম্মদ ছৈয়াল নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে রড দিয়ে পিটিয়েছে প্রতিপক্ষরা। সোমবার সকালে মহিষার ইউনিয়নের সাজনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের আরও তিন সদস্য আহত হয়েছে। আহতদের ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কবুল ছৈয়াল নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার মহিষার ইউনিয়নের সাজনপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ ছৈয়ালের সঙ্গে আবুল কালাম ছৈয়ালের দীর্ঘদিন যাবৎ জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে কোর্টে মামলা চলছিল। মামলায় নূর মোহাম্মদ ছৈয়াল রায় পায়। সোমবার সকালে আবুল কালাম ছৈয়ালের নেতৃত্বে ওই জমি দখল করতে গেলে বাঁধা দেয় নূর মোহাম্মদ ছৈয়াল। এ সময় নূর মোহাম্মদ ছৈয়াল, তার স্ত্রী রাজিয়া বেগম, পূত্রবধু সিমা আক্তার ও নাতী জাহিদকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষরা। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এদিকে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কবুল ছৈয়াল নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ ব্যাপারে নূর মোহাম্মদ ছৈয়াল বলেন, জমির মালিক আমি। তবুও জোর করে জমি দখল করে নিতে চায় আবুল কালাম। বাঁধা দিলে আমাদের রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে। এই হামলার বিচার চাই।
অন্যদিকে এঘটনায় অভিযুক্ত আবুল কালাম ছৈয়ালের বক্তব্যের জন্য বারবার চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।
ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেন, জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত মুক্তিযোদ্ধা নুর মোহাম্মদ ছৈয়ালের সঙ্গে আবুল কালাম ছৈয়ালের বিরোধ চলছিল। আজ সেই জমি দখল করতে আসে আবুল কালামের লোকজন, তখন মুক্তিযোদ্ধার পরিবার বাধা দিলে তাদের মারধর করে। এ ঘটনায় কবুল নামে একজনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।


error: Content is protected !!