বৃহস্পতিবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং, ১৩ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে পিতা মাতা পুত্র সন্তানের লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরলেন

শরীয়তপুরে পিতা মাতা পুত্র সন্তানের লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরলেন

শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিকন্দী পিতা-মাতার সাথে মোটরসাইকেলে চড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা ভটবটির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশু সন্তান জালাল আহমেদ রুমি (৪) নিহত।
সোমবার ২৭ ডিসেম্বর সকালে ঢাকার উদ্দেশ্যে শিশু জালাল আহমেদ রুমিকে নিয়ে পিতা-মাতার সাথে মোটরসাইকেলে চড়ে রওয়ানা হয় চিকন্দী আবুড়ার নিজ বাড়ি থেকে। এসময় জাজিরার লাউখোলা বাজারে বিপরীত দিক থেকে আসা বেপরোয়া গতির ভটভটির সাথে মটোরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

আহত হয় নিহত শিশুর পিতা শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট ইসমাইল হোসেন মাদবর ও মাতা পরিবার পরিকল্পনা কর্মী তারা বেগম।
জাজিরা থানা পুলিশ, নিহত শিশুর চাচাতো ভাই শাকিল হোসেন মাদবর ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শিশুটির পরিবার সহ পাড়া-প্রতিবেশী ও আত্মীয় স্বজনদের কাছে ছিল আদরের। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে পিতা মাতার পাশাপাশি দিশেহারা হয়ে পড়েছে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনরা। নিহত শিশুর মাতা তারা বেগমের চিকিৎসার জন্য আজ সকালে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। শিশুর পিতা এডভোকেট ইসমাইল হোসেন মোটরসাইল চালাচ্ছিল। বিপরীত দিক থেকে আসা বেপরোয়া গতির বটবটির সাথে মটোরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সেখানেই শিশু সন্তানর মৃত্যু হয়।

একমাত্র পুত্রের লাশ নিয়ে বাড়ি ফিরেন অসহায় ও আহত এই দম্পতি। এই ঘটনার পারে এলাকায় শোকের ছাড়া নেমে আসে। সংবাদ পেয়ে শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র পারভেজ রহমান জনসহ আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ নিহত শিশুর বাড়িতে গিয়ে শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানায়।

জাজিরা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সোহাগ বলেন, শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

শিশুর পিতা এ্যাডভোকেট ইসমাইল কোন মামলা করতে রাজি না থাকায় শিশুর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।