বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং

চিতলিয়া ইউনিয়নের উদ্যোগে আলোচনা ও ইফতার মাহফিল

চিতলিয়া ইউনিয়নের উদ্যোগে আলোচনা ও ইফতার মাহফিল

শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়নের ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ৬ জুন বিকেল ৫ টায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে এই ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আঃ রব মুন্সী বলেন, আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী না। আপনারা যারা খোঁজ খবর রাখেন, তারা জেনে থাকবেন আজকে সাড়া পৃথিবীতে একটাই নাম সম্মানের সাথে শ্রদ্ধার সাথে উচ্চারিত হচ্ছে তা হলো শেখ হাসিনা। তার কোন বিকল্প নাই। দারিদ্র বিমোচন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও উন্নয়নের জন্য শেখ হাসিনার সরকার দক্ষিণ এশিয়ার রোল মডেল। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় শেখ হাসিনাকে আরও সময় দিতে হবে। তবেই দেশের আর্থসামজিক ও বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন বাস্তবায়ন সম্ভব। বাংলাদেশ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু মিয়া বলেন, আপনাদের পাশে আংগারিয়া ইউনিয়নের কৃতি সন্তান শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগ এর সাবেক সভাপতি এবং আমার শ্রদ্ধেয় চাচা আঃ রব মুন্সী। যার হাত দিয়ে এই শরীয়তপুরের অনেক কৃতি সন্তানের জন্ম হয়েছে। তিনি উপস্থিত আওয়ামীলীগের সকল নেতা কর্মীদের সালম ও শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রশ্ন করেন, আজকের এই পবিত্র মাসে আমি বিতর্কিত কথা বলতে চাইনা। বেদনা দায়ক কথা বলতে চাইনা। কিন্তু আমি এখানে এসে শুনলাম। এই ইফতার মাহফিল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের, ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের। আজকের এই পবিত্র মাসে যারা এই ইফতার মাহফিলে আসতে বাঁধা সৃষ্টি করে। তারা কি মুসলমান? আপনারা বলেন। যারা এই বাঁধা সৃষ্টি করেছেন। তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, এই চিতলিয়া উর্বর মাটি। এখানে অনেক সাহসী সন্তানদের জন্ম। এই চিতলিয়ার প্রত্যেকটি মানুষকে আমরা চিনি। যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এবং যারা আগামী তে দিবেন। আপনাদের আমরা চিনি কত বড় সহসী লোক আপনারা। তিনি তাদের সবধান করে দিয়ে বলেন। এই ইউনিয়নে যদি কোন আওয়ামীলীগের কাউকে হুমকী ধামকি দেয়া হয়। তা হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। আমরা তার জবাব দিবো। সেখান থেকে কেউ উঠে আসতে পারবেন না। আজকে যারা বড় বড় কথা বলেন, দেশের ইতিহাস একটু স্মরণ করা উচিত। এই এলাকায় যদি রব মুন্সী’র জন্ম না হতো। তা হলে অনেকে চেয়ারম্যান তো দূরের কথা, চৌকিদার ও হতে পারতেন না। তাই বলছি ভালো হয়ে যান। তা না হলে ভালো করার সেই শক্তি আমাদের আছে। সব শেষে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন ঘটাতে জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য সবাইকে দোআ করতে বলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগ এর নেতৃবৃন্দ, যুবলীগের নেতৃবৃন্দ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ, সেচ্ছাসেবকলীগের নেতৃবৃন্দ ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।


error: Content is protected !!