বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং, ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরী
বৃহস্পতিবার, ৯ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং

বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত হয়েছে শরীয়তপুরে

বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত হয়েছে শরীয়তপুরে

“মাটি : খাদ্যের সূচনা যেখানে” প্রতিপাদ্যে র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ের মৃত্তিকা সম্পদ ইনস্টিটিউট, শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগের আয়োজনে শরীয়তপুরে বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত হয়েছে।

দিবস উপলক্ষে ৫ ডিসেম্বর সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় জেলাপ্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি শেষে জেলাপ্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর শরীয়তপুরের উপপরিচালক মো: মতলুবর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলাপ্রশাসক মো: পারভেজ হাসান। বিশেষ অতিথি ছিলেন এরআরডিআই ফরিদপুরের উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো: কিবরিয়া ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) গাজী শরীফুল হাসান। র‌্যালি ও আলোচনা সভায় কৃষি, মৎস্য, প্রাণীসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা সহ কৃষক ও সংবাদকর্মীগন অংশ নেন।

আলোচনায় বক্তারা মাটির স্বাস্থ্য রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার উপর গুরুত্বারোপ করে বক্তব্য রাখেন। সভাপতির বক্তব্যে মো: মতলুবর রহমান বলেন, জ্যামিতিক হারে জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে খাদ্য উৎপাদন বাড়ানো অত্যন্ত জরুরী হয়ে পড়েছে। তবে আমরা যদি মাটির গুণাগুণ ও উপযোগীতা যাচাই ফসল আবাদ করতে না পারি তাহলে কাংখিত ফলন পাওয়া কঠিন হয়ে পড়বে। তাই কৃষক সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে খেয়াল রাখতে হবে মাটির স্বাস্থ্য রক্ষা করেই আমাদেরকে ফলন বাড়ানোর কার্যকরী উদ্যোগ নিতে হবে। তবেই আমরা উৎপাদন বৃদ্ধি করে খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জন করেও ধীরে ধীরে উদ্বৃত্ত খাদ্য রপ্তানি করতেও সক্ষম হবো।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলাপ্রশাসক মো: পারভেজ হাসান বলেন, বৈশ্বিক জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলা করে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে কৃষি নির্ভর বাংলাদেশের মাটির স্বাস্থ্য রক্ষা করা হোক আমাদের আজকের বিশ্ব মৃত্তিকা দিবসের অঙ্গীকার।

ইতিমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র ঘোষণা অনুযায়ী “একইঞ্চি পতিত জমিও অনাবাদি রাখা যাবে না” বাস্তবায়নে কৃষি বিভাগের সাথে সমন্বিতভাবে কাজ করছি। তাই আমরা যেন মাটিকে মা হিসেবে বিবেচনায় রেখে মাটির স্বাস্থ্য রক্ষায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কৃষিকাজ, স্থাপনা নির্মাণ সহ সার্বিক উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করি। মা-মাটি সুস্থ থাকলেই আমরাও স্বাস্থ্যবান জাতি হিসেবে মাথা উচু করে বেচে থাকতে পারবো।


error: Content is protected !!