সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ ইং, ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ ইং

শরীয়তপুর জেলা অাইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা

শরীয়তপুর জেলা অাইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা

শরীয়তপুর জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা রোববার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের সভাপতির বক্তব্যে বলেছেন, “মাদক একটি সামজিকব্যাধী হয়ে দাড়িয়েছে। মাদক নিয়ন্ত্রনে সুশাসনের কোন বিকল্প নাই”।কোন মাদক ব্যবসায়ী বা মাদক সেবীকে হত্যা করে বা হাজতে পাঠিয়ে এরস্থায়ী সমাধান সম্ভব না। মাদক একটি পারিবারিক ও সামাজিক ব্যাধী।পরিবার ও সমাজ থেকে মাদক নির্মূল করতে হলে পরিবার ও সমাজ থেকেইআন্দোলন শুরু করতে হবে।তিনি আরও বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রনে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তারকোন কার্যক্রম আছে মর্মে আমি ওয়াকিবহাল না।

জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণকর্মকর্তাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, মাকদ নিয়ন্ত্রনে আপনার কোন প্রচারপ্রচারণা করতে হবে না। আপনি শুধু কতগুলো অভিযান পরিচালনা করেছেন,কতজনকে আটক করেছেন, মোবাইলকোর্টের মাধ্যমে কতজন মাদকব্যবসায়ী বা মাদক সেবীকে সাজা দেয়ার ব্যবস্থা করেছেন তার প্রতিবেদনআমাকে দিবেন।

উপজেলা প্রশাসনের উদ্দেশে তিনি বলেন, মাদকের জন্য সমাজে পচন ধরেছে।তাই মাদক নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠর পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। মাদকের ছোঁবলথেকে সমাজ রক্ষা করতে না পারলে পারিবারিক ও সামাজিক সম্পর্ক নষ্ট হবে।মাদক নির্মূল করতে হলে শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি ও খেলাধুলা চর্চা কতেহবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাথে সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদ, মাদক ও বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে আলোচনা করা হলেসাধারণ মানুষ সচেতন হবে।অনেকে আছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর সমালোচনা করেন। তারাবলেন, পুলিশ আসামী ধরছে না, ধরলেও ছেড়ে দিচ্ছে। মূলত মাদকসেবনকারী বা ব্যবসায়ীর দখলে মাদক না থাকলে তাকে আটক করা যায় না।দর্শক গ্যালারী থেকে খেলোয়াড়ের সমালোচনা করা যায়, মাঠে খেলেপারফরমেন্স করা কঠিন। একজন বাবা-মাও চায় তার সন্তান মাদকের পথ থেকেসরে আসুক। সামাজিক আন্দোলন জোরদার হলেই মাদক মুক্ত সমাজ গড়াসম্ভব।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, পদ্মার ডান তীর রক্ষা বাধের জন্য ১ হাজার ৯৭কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। কোন পদ্ধতিতে কাজ হবে তার সিদ্ধান্তের জন্য কাজ আটকে আছে। বর্তমানে নতুন করে পদ্মার ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। ভাঙ্গনরোধে ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে অস্থায়ী কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

মাওয়া দিয়েস্পীডবোট পারাপারের সময় যাত্রী হয়রাণীর অভিযোগ আছে। স্পীডবোটেরকোন নিবন্ধন নাই, চালকের কোন লাইসেন্স নাই। তাই এ অনিয়ম নিয়ন্ত্রনেরকোন সুযোগ নাই। তবে যাত্রিদের সুবিধার্থে ঘাট খাজনা মওকুফেরজন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। যাতে ঘাটখানা ইজারা তালিকা থেকে মঙ্গল মাঝির ঘাট বাদ দেয়া যায়। তাহলে যাত্রিহয়রানী কিছুটা লাঘব হবে।

পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন বলেন, অপরাধীরা এখন মসজিদকে নিরাপদআশ্রয় হিসেবে চিহ্নিত করেছে। অনেকে অপরাধ করে মসজিদে গিয়েআশ্রয় নেয়। গত সপ্তাহে পৌরসভার চরপালং এলাকার মসজিদ থেকে এক মাদকব্যবসায়ী মুসল্লিদের হাতে আটক হয়েছে। হত্যা করে শরীয়তপুর থেকেপালিয়ে যাওয়া অপর এক আসামী ঢাকার এক মসজিদ থেকে আটক হয়েছে।একজন অপরাধী অপরাধ করে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যায়। মাদক সেবী বা ক্ষুদ্রমাদক ব্যবসায়ীদের মোবাইল কোর্টের আওতায় আনা গেলে রুট লেবেলথেকে মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপস্থিত ছিলেন, শরীয়তপুর সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মনোয়ার হোসেন, সরকারী গোলাম হায়দার খান মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. রেজাউল করিম, সিভিল সার্জন ডা. খলিলুররহমান, স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক মাহবুবা আক্তার, এডিএম মিজানুররহমান, প্যানেল মেয়র হোসাইন মো. আলমগীর, সদর উপজেলা নির্বাহীঅফিসার মো. জিয়াউর রহমান, জাজিরা উপজেলা নির্বাহী অফিসাররাহেলা রহমত উল্যাহ, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদাইয়াসমিন, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাব্বির আহমেদ,গোসাইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর এম সেলিম শাহনেয়াজ,শরীয়তপুর চেম্বার অব কমার্স এর সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালামবেপারী প্রমূখ।


error: Content is protected !!