শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে পুলিশের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

শরীয়তপুরে পুলিশের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

পুলিশের প্রতি মানুষের গতানুগতিক ধ্যান-ধারণা পাল্টে দিতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার।
পুলিশ জনগণের বন্ধু। ব্যতিক্রমী আয়োজনের মধ্য দিয়ে মোটর যানবাহনের বৈধ কাগজপত্রধারীদের লাল গোলাপ দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার ও ট্রাফিক সার্জেন্টরা।
অপরদিকে কাগজপত্র না থাকায় কয়েকটি যানবাহনের নামে মামলাও দিয়েছেন তারা। শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে জেলা শহরের কোর্ট সংলগ্ন শরীয়তপুর পুলিশ বক্সের সামনে শরীয়তপুর-ঢাকা মহাসড়কে এ আয়োজন করা হয়।
শরীয়তপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. আল মামুন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) মো. কামরুল হাসান, পালং মডেল থানা তদন্ত ওসি মো. হুমায়ুন কবির, অপারেশন মো. আশরাফুল ইসলাম, টিআই জামাল হোসেন মীর, পালং মডেল থানার এসআই মো. গুলজার আলম, ফারুক, রবিউল, জেলা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্ট মেহেদী হাসান ও টিএসআই গোলাম মোস্তফা, মোসলেম উদ্দিন জেলা শহরের প্রবেশ দ্বার প্রান্তে ট্রাফিক বক্সের সামনে যানবাহন পরীক্ষা অভিযান শুরু করেন।
পালং উচ্চ বিদ্যালয় ও পালং তুলাসার গুরুদাস সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ কাজে সহযোগিতা করেন পুলিশকে।
এ সময় শতাধিক মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন মালিককে একটি করে গোলাপ ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। পুলিশের কাছ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা পেয়ে খুশি সব ধরনের যানবাহন মালিকরা।
অন্যদিকে একই অভিযানে বিভিন্ন যানবাহনের কাগজপত্র পরীক্ষা করে ত্রুটি পাওয়ায় মামলা দেয়া হয়। রেজিস্ট্রেশন বিহীন মোটরসাইকেল আটক করা হয়।
এ ব্যাপারে শরীয়তপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল মামুন শিকদার জানান, ট্রাফিক আইন সচেতনতা ক্যাম্পেইন হিসেবে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সাধারণ লোকদের আইন মেনে চলার জন্য ও সবাইকে আগ্রহ করার জন্য এ উদ্যোগ।
তিনি জানান, যাদের কাজগপত্র ঠিক আছে তাদের শুভেচ্ছা জানিয়ে সম্মানিত করার মধ্য দিয়ে যানবাহন মালিকদের সচেতনতা বৃদ্ধি করা।


error: Content is protected !!