শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

রুবিনা হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

রুবিনা হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার বড় মূলনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও মূলনা ইউনিয়নের পশ্চিম রায়ের কান্দি গ্রামের হাসান মুন্সীর মেয়ে রুবিনা আক্তারের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজ শরীয়তপুর জেলা শাখার আয়োজনে শরীয়তপুর সদর উপজেলা চত্বরে এ মানববন্ধন করা হয়।
এসময় বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি মো. এমদাদুল হক, বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমাজ শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ চন্দ্র দত্ত, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি শরীয়তপুর সদর উপজেলা শাখার সভাপতি ফারুক খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম, নড়িয়া উপজেলার কোষাদক্ষ্য ছাইদুল হক মুন্সী, বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমাজ নড়িয়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. তৌহিদুল ইসলাম (বিপ্লব), বড় মূলনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খান আব্দুর রহিম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধনে শিক্ষকরা বলেন, সহকারী শিক্ষক রুবিনাকে হত্যা করে বাঁশ ঝাড়ে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। নারকীয়, পৈশাচিক হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। তা না হলে আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।
প্রসঙ্গত, এক বছর আগে পাশের পূর্ব রায়ের কান্দি গ্রামের ইতালি প্রবাসি আক্তার মল্লিকের সঙ্গে মুঠোফোনে রুবিনা আক্তারের (৩৪) বিয়ে হয়। আগামী জানুয়ারিতে স্বামী দেশে ফিরে তাকে তাদের বাড়িতে নেয়ার কথা ছিল। রুবিনা তার মা রাবেয়া খাতুনের সঙ্গে বসবাস করতেন।
গত শুক্রবার দুপুরে তিনি বিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্র ফটোকপি করার জন্য জাজিরা উপজেলা সদরে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর আর ফিরে আসেননি। তিনি বাড়ি না ফেরায় শনিবার তার ভাই শামছুল হক মৃধা জাজিরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।
গত মঙ্গলবার স্থানীয়রা তাদের বাড়ির কাছে একটি বাঁশ বাগানে ওড়না দিয়ে বাঁধা লাশের সন্ধান পেয়ে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তর জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।


error: Content is protected !!