বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে সাংবাদিকদের সাথে প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

শরীয়তপুরে সাংবাদিকদের সাথে প্রেস কাউন্সিলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

শরীয়তপুরের প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে বাংলাদেশ প্রেসকাউন্সিলের আইন ও আচরণ বিধি সম্পর্কিত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার ৪ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে ও শরীয়তপুর জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় শরীয়তপুর সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনিুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব শাহ আলম।
শরীয়তপুরের সুযোগ্য জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহেরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, শরীয়তপুরের সুযোগ্য পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর সিনিয়র রিপোর্টার খায়রুজ্জামান কামাল ও শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক অনল কুমার দে।

শরীয়তপুরে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় সভাপতি শহীদুল ইসলাম পাইলটসহ নেতৃবৃন্দ। ছবি- দৈনিক রুদ্রবার্তা

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, জেলা তথ্য কর্মকর্তা মুহাম্মদ জালাল উদ্দিন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ তার বক্তব্যে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সমস্যা ও সমাধানের পথ নিয়ে আলোচনা করেন। এসময় তিনি সাংবাদিকদের সঠিক ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রচার ও প্রচারণার ব্যাপারেও নানামূখী দিকনির্দেশনা দেন। সবশেষে তিনি মফস্বল সাংবাদিকদের যুক্তিযুক্ত দাবী আদায়ের লক্ষ্যে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।
শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেন, আমাদের বুকের মাঝে স্বাধীনতার চেতনাকে ধারণ করতে হবে। ১৬ ডিসেম্বরকে ধারণ করতে হবে। আমাদের সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে ন্যায়নিষ্ঠা ও সততার সাথে কাজ করে যেতে হবে। সাংবাদিকতায় বস্তুনিষ্ঠতা ও ন্যায়পরায়ণতা থাকতে হবে। অসত্য কোন সংবাদ প্রচার বা প্রকাশ করা যাবে না। তিনি বলেন আচরণবিধীর ১ এ বলা আছে জাতীসত্তা বিনাসী, দেশের সংবিধান বিরোধী বা পরিপন্থী কোন সংবাদ প্রচার করা যাবে না। মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী সকল প্রচারণা থেকে আমাদের সকলকে বিরত থাকতে হবে। আমাদের যেকোন মূল্যে সাম্প্রদায়ীক সম্প্রীতিকে ধরে রাখতে হবে। যাতে কোন ধর্মীয় অনুভূতীতে আঘাত না আসে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সবশেষে ভিশন-২০২১ সালকে সাফল্যমন্ডীত করার লক্ষ্যে সাংবাদিকদের ন্যায়নিষ্ঠার সাথে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বক্তব্য শেষ করেন।


error: Content is protected !!