শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুর-২ আসনে এনামুল হক শামীমের বিকল্প নেই

শরীয়তপুর-২ আসনে এনামুল হক শামীমের বিকল্প নেই

ঢাকাস্থ সখিপুর থানা বাসীর ব্যানারে শুক্রবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে এক মিলনমেলার আয়োজন করা হয়। উক্ত মিলন মেলায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন শরীয়তপুর-২ আসনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম।
এসময় অধ্যাপক আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফারজানা ইসলাম, ধর্ম সচিব মো: আনিছুর রহমান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রচার সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান, ঢাকা মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা মো: বাচ্চু মিয়া বেপারী, বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জি: ওয়াসেল কবির, শরীয়তপুর জেলা যুবলীগ ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জি: আলাউদ্দিন আহমেদ, সাবেক ছাত্র নেতা নুরুল আমিন, সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মানিক সরকার, ডা: ইকবাল কবির ফয়সাল, মহিউদ্দিন খোকা, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ কামাল বেপারী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ নাছির উদ্দিন বেপারী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেক বাগা, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা রুহুল কুদ্দুস খোকন।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানকে স্মরণ করে শামীম বলেন, আমি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। যার পরম স্নেহে আমি আজকের এনামুল হক শামীম। শেখ হাসিনা মমতাময়ী নেত্রী। শেখ হাসিনা উন্নয়নের নেত্রী। শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী থাকলে শুধু শরীয়তপুর উন্নয়ন হয় না, সারা বাংলাদেশ উন্নয়ন হয়।
তিনি বলেন, সখিপুর থানা শেখ হাসিনার সৃষ্টি। মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী বলেছেন তিনি চতুর্থ বারের মত প্রধানমন্ত্রী হলে সখিপুর থানাকে উপজেলাসহ ২৫০ সজ্জা বিশিষ্ট হাসপাতাল করে দিবেন। হাজী শরীয়তউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ সরকারি হবে, সখিপুর-নড়িয়া তথা শরীয়তপুর উন্নয়ন হবে। বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য নৌকা বিজয়ের বিকল্প নাই।
বিশেষ অতিথিরা বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখলে অবহেলিত শরীয়তপুর আর অবহেলিত গ্রাম থাকবে না। সর্বত্রই উন্নয়নের ছোঁয়া লাগবে। জনজীবনের সব সমস্যার সমাধান হবে। উন্নত ও সমৃদ্ধশালী নড়িয়া-সখিপুর গড়তে হলে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।
তারা বলেন, বর্তমান সরকারের বিভিন্ন সময়ে এ অঞ্চলে স্কুল-কলেজ, সড়ক, সেতুসহ ব্যাপক গ্রামীণ অবঠামোর উন্নয়ন মূলক কাজ হয়েছে। তাই এ এলাকার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে শরীয়তপুর-২ আসনে একেএম এনামুল হক শামীমের বিকল্প নাই। বিপুল ভোটে শামীমকে জয়ী করার লক্ষ্যে সবাই একাত্ত্বতা প্রকাশ করেন।
মিলন মেলাটি আয়োজন করে ‘ঢাকাস্থ সখিপুর থানা বাসি’ এবং সার্বিক তত্বাবধায়নে ছিলেন মুছা সরদার। মিলন মেলায় সখিপুর-নড়িয়াসহ শরীয়তপুর জেলার বিভিন্ন থানার বহু গণ্যমান্য লোক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


error: Content is protected !!