শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুর সাইক্লিস্টসের প্রথম লং রাইড ১০৩ কি.মি.

শরীয়তপুর সাইক্লিস্টসের প্রথম লং রাইড ১০৩ কি.মি.

“মাদকমুক্ত ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন শহর গড়ি” এই প্রত্যয় নিয়ে শরীয়তপুর সাইক্লিস্টস প্রথম যাত্রা শুরু করে ২০১৮ সালের ১২ই জানুয়ারি। সেই ধারাবাহিকতায় শরীয়তপুর সাইক্লিস্টস গত ২৯ মার্চ শুক্রবার ৬০তম ফ্রাইডে রাইড এবং প্রথম লং রাইড এর আয়োজন করেছিল। প্রতি শুক্রবার বিকাল ৩ টা ৩০ মিনিটে শরীয়তপুর শহীদ মিনার থেকে ফ্রাইডে রাইড বের হয়।
শরীয়তপুর সাইক্লিস্টস এর প্রথম লং রাইড ছিলো যার নাম অনুসারে শরীয়তপুর জেলা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল সেই হাজী শরীয়তুল্লাহ্ এর বাড়ি। তার বাড়ির সূত্র ধরে শরীয়তপুর সাইক্লিস্টস এর সিনিয়র দক্ষ ৯ সদস্য বিশিষ্ট এক টিম তার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সকাল ৮টায় শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হতে রওনা দেয়। তারপর মাদারীপুর জেলার সদর থানার মঠের বাজার হয়ে ছিলারচর হাট দিয়ে শিবচর সদর পৌরসভার “৭১ চত্বর” হয়ে “স্বাধীনতা চত্বর” দিয়ে হাজী শরীয়তুল্লাহ্ সড়ক দিয়ে বাহাদুরপুর মাদানিয়া শরীয়াতিয়া দারুল উলুম কওমিয়া মাদ্রসা, লিল্লাহ বোডিং ও এতিম খানা (হাজী শরীয়তুল্লাহ্ বাড়ি) পৌঁছাতে সময় লাগে ৪ ঘন্টা। কিছুক্ষণ বিশ্রাম ও হাজী শরীয়তুল্লাহ্ গল্প শুনেছে কিভাবে ফরাজিয়া আন্দোলন করেছিলেন মুসলমানদের জন্য তার অবদান কি ছিলো তা শ্রবণ করেছিলো শরীয়তপুর সাইক্লিস্টস এর সদস্যরা। এরপর দুপুর ১২ টার দিকে শরীয়তপুর এর উদ্দেশ্যে বের হয় কিছুদূর সামনে এগিয়ে সন্তেষপুর এলাকায় এসে নদীতে গোসল, জুমার নামাজ ও দুপুরের খাবার খাওয়া হয় এরপর চন্দ্রপুর দিয়ে শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে প্রথম লং রাইড শেষ করা হয়।
যার মোট দূরত্ব: ১০৩+ কিলোমিটার। শরীয়তপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে রাইড শুরু করে আংগারিয়া বাজার, টেকেরহাট, মঠের বাজার, মৃদ্ধাবাড়ির মোর, ছিলারচর বাজার, পাঁচচর, শিবচর, হয়ে হাজী শরীয়তউল্লাহ এর বাড়ি। শরীয়তপুর আসার সময় জয়নগর, চাঁন্দেরচর, রায়পুর, লক্ষীর মোর, চন্দ্রপুর বাজার, মাউনপুর, গয়াতলা, বিনোদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ, রঙ্গের বাজার, আংগারিয়া বাজার, মনোহর মোড় হয়ে শহীদ মিনারে এসে রাইড শেষ হয়।


error: Content is protected !!