শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

শরীয়তপুরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

শরীয়তপুরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলা বিএনপি ও তার অঙ্গসংঘটনের আয়োজনে শরীয়তপুর নতুন বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন মাহবুব আলম তালুকদারের মাদরাসা মাঠ প্রাঙ্গণে এ আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মাহবুব আলম তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি মোফাজ্জল হোসেন ফকির। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন বাদল, জেলা যুবদলের সভাপতি আরিফুজ্জামান মোল্যা, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক হানিফ মাহমুদ।
এ সময় জেলা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মনির হোসেন মাঝি, শরীয়তপুর সরকারী কলেজের সাবেক এজিএস ও সদর উপজেলা যুবদলের সভাপতি লিয়াকত হোসেন খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আমিনুর রহমান আমান, জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক বাদশা মিয়া, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাশেদ খান মেনন, সাংগঠনিক সম্পাদক রিংকু তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মান্নান মাদবর, জেলা ত্রিণমূল দলের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন আকন্দ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ছিলেন আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার। তিনিই জাতির সঙ্কটময় মুহূর্তে বারবার দাঁড়িয়েছেন নির্ভয়ে, মাথা উঁচু করে। বিপর্যস্ত জাতিকে রক্ষা করেছেন সর্বোচ্চ ঝুঁকি নিয়ে। ১৯৭১ সালের উত্তাল মার্চে জিয়াউর রহমানের কণ্ঠে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দিশেহারা জাতিকে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার সাহস জুগিয়েছে। স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েই তিনি ক্ষান্ত থাকেন নি, দেশমাতৃকার মুক্তির জন্য হানাদারদের বিরুদ্ধে সেক্টর কমান্ডার ও জেড ফোর্সের অধিনায়ক হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার এ অতুলনীয় ভূমিকা ইতিহাসে উজ্জ্বল হয়ে আছে। তাই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে তাকে গভীরভাবে স্মরণ করছি।


error: Content is protected !!