রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং, ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১লা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ ইং

গোসাইরহাটে ককটেল ফাটিয়ে হামলা লুটতরাজের অভিযোগ

গোসাইরহাটে ককটেল ফাটিয়ে হামলা লুটতরাজের অভিযোগ

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার উত্তর নাগের পাড়ায় ককটেল ফাঁটিয়ে ৪টি দোকানে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাত ৯টায় উত্তর নাগের পাড়ে দপ্তরী বাড়ি সংলগ্ন দোকান গুলোতে ভাংচুর করে নগদ অর্থ লুটকরে নেয় সন্ত্রাসীরা। এসময় সন্ত্রাসীদের হামলায় নারী সহ ২/৩ জন আহত হয়েছে। রাতেই পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে দুটি ককটেল উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

এলকাবাসী জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় কিশোর বয়সের কয়েকজনকে নিয়ে একটি ব্যাটারী চালিত অটো গাড়ি নাগের পাড়া বাজারের দিকে যাচ্ছিল। উত্তর নাগের পাড়া দপ্তরী বাড়ি এলাকায় অটো গাড়িটি এক বৃদ্ধতে ধাক্বা দিয়ে সটকে যায়। স্থানীয়রা ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। পরে ওই অটো গারির চালকে পক্ষ থেকে লোকজন এসে আহত বৃদ্ধার সাথে আপোষ মিমাংশা করে নেয়। কিছুক্ষণ পরেই স্থানীয় নাগের পাড়া গ্রামের মেজবাহ মৃধার ছেলে মাসুদ (১৮) ও রাশেদ (২৪), আবুল সরদারের ছেলে আফজাল (২০), ওহাব নক্তির ছেলে আহম্মদ আলী (২০), আমির হোসেন মৃধার ছেলে আরিফ হোসেন মৃধা (১৮) এর নেতৃত্বে প্রায় ১০/১১ জন কিশোর ককটেল ফুটাতে শুরু করে।
এসময় উপস্থিত লোকজন আতংকে ছুটাছুটি করতে থাকে। এরপর তারা দেশীয় অস্ত্রাদি দিয়ে দোকানে হামলা ও ভাংচুর করে। বজলুর রহমান চৌধুরী বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা করেছে। কিন্তু পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

গোসাইরহাট থানার এসআই আব্দুল মতিন বলেন, স্থানীয়রা সকালে দুটি ককটেল পড়ে থাকতে দেখে ফোন করেছিল। এলাকারবাসীর সহায়তায় ককটেল দুইটি উদ্ধার করা হয়েছে। এলাকায় এখন শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

গোসাইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তদন্ত আবু বকর বলেন, ঘটনা শুনে রাতেই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান চলছে।