শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ ইং, ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ ইং

গোসাইরহাটে স্কুল ছাত্রকে কাঁচভাঙ্গা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

গোসাইরহাটে স্কুল ছাত্রকে কাঁচভাঙ্গা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে এক স্কুল ছাত্রকে ধারালো কাঁচ ভাঙ্গা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দূর্বিত্তরা। ২৫ আগষ্ট শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেরার মাইঝারা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর আহত অবস্থায় স্কুল ছাত্র সাইফুল ইসলাম পাইককে (১৬) গোসাইরহাট উপজেরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৮টার দিকে সাইফুলের মৃত্যু হয়। নিহত সাইফুলের বাবা বাদী হয়ে গোসাইরহাট থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে। জামাল সরদার ও আবুবকর সরদার নামে ২ জন ঘাতককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গোসাইরহাট থানা ও নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, উপজেরার চর-মাইঝারা গ্রামের আলমগীর পাইকের ছেলে ও মাইঝারা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র সাইফুল ইসলাম। নিহত সাইফুল ইসলামের ভাই মিজান ও শাহাজালাল সৌদি প্রবাসে থাকে একই সাথে আসামী জামাল সরদারের দুই ভাই সৌদিতে থাকে। ইতোমধ্যে প্রবাসে তাদের মধ্যে জামেলা হয়। সেই ঝামেলাকে কেন্দ্র করেই সাইফুলকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। গ্রেফতারকৃত জামাল সরদার ও আবুবকর সরদার একই গ্রামের খলিল সরদারের ছেলে।
গোসাইরহাট থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মেহেদী মাসুদ বলেন, উপজেলার মাইঝারা বাজারে বইয়ের দোকানের সামনে সন্ধ্যা ৭টার সময় জামাল সরদার ও আবুবকর সাইফুল ইসলামকে মারধর করে। এ পর্যায়ে কাঁচভাঙ্গা দিয়ে সাইফুলের বুকের দুই পাশে আঘাত করে। সাইফুল অসুস্থ হয়ে পরলে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। রাত সারে ৮টার দিকে সাইফুল মারা যায়। এ বিষয়ে সাইফুলের বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। মামলার প্রধান আসামী জামাল সরদার ও আবু বকর সরদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


error: Content is protected !!