শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

দূর্যোগে শেখ হাসিনা ও তার কর্মীই মানুষের পাশে থাকেন : এনামুল হক শামীম

দূর্যোগে শেখ হাসিনা ও তার কর্মীই মানুষের পাশে থাকেন : এনামুল হক শামীম

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, যে কোনো দুর্যোগে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই মানুষের পাশে থাকে। এটি আওয়ামী লীগের একটা সংস্কৃতি ও রীতি। আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় ছিল না, তখনো তারা মানুষের পাশে ছিলেন। এখনো সব সময় পাশে থাকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মানবতা ও বাংলাদেশের উন্নয়ন বিশ্বে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মানব কল্যাণে কাজ করছে এবং সবসময় মানবতার পাশেই থাকে। একারণে কোথাও প্রাকৃতিক দূর্যোগ হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্ঘুম রাত কাটান। তিনি পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় এবং ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন। পাশাপাশিও দলীয় নেতাকর্মীদেরকে মানুষ ও মানবতার পাশে থেকেও কাজ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ২৫ অক্টোবর দিনব্যাপী শরীয়তপুরের নড়িয়া ও সখিপুরে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন এবং ক্ষতিগ্রস্ত শুকনা খাবার, নগদ অর্থ ও টিন বিতরণকালে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার মা। যখনই কোথাও প্রাকৃতিক দূর্যোগ দেখা দেয়, তখনই সেখানে ত্রাণ তৎপরতায় প্রশাসন ও আমাদের দলীয় নেতাদের উৎসাহ দিয়েছেন, নির্দেশনা দিয়েছেন।

উপমন্ত্রী বলেন, যে কোনো দুর্যোগ দুর্বিপাকে আওয়ামী লীগ জনগণের পাশে দাঁড়ায়। আর এদেশে কোন রাজনৈতিক দল মানুষের পাশে থাকে না। তারা মাঝে মধ্যে ফটোসেশন করার জন্য ত্রাণ দিতে যায়। ফটোসেশন শেষ হলে বিদায় নিয়ে চলে আসে। বিএনপি মানুষের জন্য রাজনীতি করে না। তারা পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসার জন্য অপরাজনীতি করে। তারা দূর্যোগ হলে তা নিয়ে রাজনীতি করে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জেগে থাকেন বলেই বাংলাদেশ নিরাপদ থাকে, তিনি জেগে থাকেন বলেই আমরা নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারি।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি যতই ষড়যন্ত্র করুক, কোনো লাভ হবে না। বিএনপি নামক গণধিকৃত দলকে এদেশের মানুষ চিনে ফেলেছে। কারণ, দেশ ও দেশের মানুষের সংকটে তারা পাশে না থেকে, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য তারা পেট্টোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করে। উন্নয়ন, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আবারও ক্ষমতায় আসবেন। এদেশের জনগণ একমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। জনগণ দেশবিরোধী বিএনপিকে আর ক্ষমতায় আনবে না।

এসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড শরীয়তপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী এস.এম আহসান হাবীব, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ রাশেদউজ্জামান, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. শফিকুল ইসলাম রাজীব, পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. পারভেজ, পিআইও আহাদী হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, সখিপুর থানার সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার, নড়িয়া উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান জাকির বেপারী, কেদারপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিহির চক্রবর্তী প্রমূখ।

#


error: Content is protected !!