সোমবার, ৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, ১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
আজ সোমবার | ৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং

নড়িয়ায় স্ত্রীকে হত্যা করে ট্যাংকে ঢুকিয়ে রাখলো স্বামী

রুদ্রবার্তা প্রতিবেদক

মঙ্গলবার, ২৬ জুন ২০১৮ | ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ | 10596Views

নড়িয়ায় স্ত্রীকে হত্যা করে ট্যাংকে ঢুকিয়ে রাখলো স্বামী

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার চাকধ গ্রামে স্বামী দেলোয়ার ছৈয়াল (৩৫) এর বিরুদ্ধে স্ত্রী ইভা আক্তারকে (২০) ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করে মরদেহ বিল্ডিং এর সেফটি ট্যাংকে ঢুকিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (২৫ জুন) রাত আনুমানিক ০৯টার দিকে এ হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত দেলোয়ার পলাতক রয়েছে।

নিহত ইভা আক্তার উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের চন্ডিপুর গ্রামের আঃ মান্নান শেখের মেয়ে। অভিযুক্ত দেলোয়ার ছৈয়াল ভুমখাড়া ইউনিয়নের চাকধ গ্রামের আঃ জব্বার ছৈয়ালের ছেলে।

নড়িয়া থানা পুলিশ সুত্রে জানাযায়, নিহত ইভা চাকধ এলাকায় নানী আনোয়ারা বেগম এর কাছে থাকতো। প্রায় ২ বৎসর পূর্বে চন্ডিপুর গ্রামের পলাশ নামে এক লোকের সাথে বিয়ে হয় তার। সেখান থেকে ডিভোর্স হয়ে গেলে ৬ মাস পূর্বে চাকধ গ্রামের দেলোয়ার ছৈয়াল এর সাথে পূনরায় বিয়ে হয়। কিন্তু সাংসারিক জীবনে দেলোয়ার এর সাথে সুখী ছিলনা। সোমবার আনুমানিক রাত ০৯টার দিকে তাকে পার্শবর্তী একটি নির্মানাধীন বিল্ডিং এর ছাদে ডেকে নেয় দেলোয়ার। তাকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করে মরদেহ বিল্ডিং এর সেফটি ট্যাংক এ লুকিয়ে রেখেছে বলে ধারনা করছে পুলিশ। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে সেফটি ট্যাংক এর ভিতর থেকে লাশ উদ্ধার করে।

নিহত ইভার নানী আনোয়ারা বেগম বলেন, আমার নাতনিকে দেলোয়ার বিল্ডিং এর ছাদ থেকে ফেলে হত্যা করে লাশ ট্যাংকির ভিতর লুকিয়ে রাখছে। আমরা নাতনি হত্যাকারী দেলোয়ার এর ফাসি চাই আমি।

এ ব্যাপারে নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উদ্দিন বলেন, সুরতহাল রিপোর্টে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ঘটনার পর থেকেই ঘাতক দেলোয়ার বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দেলোয়ারের মা সায়েরা বেগমকে পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে।


-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেইসবুক পাতা

-Advertisement-
-Advertisement-
error: Content is protected !!