শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এইচএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে শরীয়তপুরের সিয়াম

প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে এইচএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে শরীয়তপুরের সিয়াম

ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করলে সংক্রমণ দেখা দেয়ায় চিকিৎসকরা অস্ত্রোপচার করে কবজির ওপর থেকে হাত দুটো কেটে ফেলেন। কিন্তু এতে দমে যায়নি সিয়াম। প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে শরীয়তপুরের নড়িয়া সরকারি কলেজ থেকে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৪.০৮ পেয়েছে।
২০১৭ সালে বাড়ি থেকে জোহরের নামাজ পরে প্রাইভেট পড়াতে যাওয়ার সময় শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পল্লী বিদ্যুতের ছিঁড়ে পড়া তারে জড়িয়ে গুরুতর আহত হয় সিয়াম আহাম্মেদ খান (১৮)।
অন্যের ঘাড়ে বোঝা হয়ে না থেকে স্বাভাবিক জীবন যাপনের জন্য শুরু করেছে পড়ালেখা। বড় হয়ে ইউএনও হতে চায় সিয়াম। দাঁড়াতে চায় প্রতিবন্ধীদের পাশে।
সিয়াম আহাম্মেদের মা নাজমা বেগম বলেন, হাত অকেজো হওয়ার কারণে আমার ছেলের অনেক কষ্ট হয়। তবুও লেখাপড়া করে এইচএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে। আমি খুব খুশি হয়েছি। আমার ছেলেকে যেন সমাজে অবহেলা না করা হয় সেজন্য যতদূর পারব তাকে লেখাপড়া করাব।
বাবা ফারুক আহাম্মেদ খান বলেন, এখন পথে বসেছি, আর পারছি না। এতো কষ্টের পরও ছেলেকে পড়ালেখা করিয়ে যাচ্ছি। আমি একজন গরিব মানুষ। তবুও ধার দেনা করে ওর চিকিৎসা করতে এই পর্যন্ত ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা খরচ করেছি। ছেলে পাশ করেছে আমি খুব আনন্দিত। ওর জন্য সবাই দোয়া করবেন।
তিনি বলেন, হাইকোর্ট থেকে পল্লী বিদ্যুৎকে ৫০ লাখ টাকা দিতে বললেও এখনও কোনো টাকা পাইনি।
নড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুল খালেক বলেন, সিয়াম আমাদের কলেজের গর্ব। সিয়াম মেধাবী ছাত্র। সিয়াম অনেক কষ্ট করে লেখাপড়া করছে। তার ইচ্ছাশক্তি প্রকট তাই ভালো রেজাল্ট করেছে।
নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা ইয়াসমিন বলেন, পল্লী বিদ্যুতের ছিঁড়ে পড়া তারে জড়িয়ে দুই হাত হারানো সিয়াম জিপিএ-৪.০৮ পেয়েছে। সিয়াম পাশ করেছে শুনে খুব খুশি হয়েছি। খুশির খবর শুনে ওর বাড়িতে মিষ্টি পাঠিয়েছি। সিয়ামের সামনে কলেজে ভর্তিসহ সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করবো।


error: Content is protected !!