বৃহস্পতিবার, ৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং, ২৬শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরে বিশ্ব ভোক্তা-অধিকার দিবস উদ্যাপিত

রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০ | ২:৫১ অপরাহ্ণ | 75Views

শরীয়তপুরে বিশ্ব ভোক্তা-অধিকার দিবস উদ্যাপিত

“মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, সুরক্ষিত ভোক্তা অধিকার” প্রতিপাদ্যকে নিয়ে শরীয়তপুরে বিশ্ব ভোক্তা-অধিকার দিবস ২০২০ উদযাপিত হয়েছে। রোববার (১৫ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে জেলা প্রশাসন ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে শরীয়তপুর শহরের প্রধান সড়কে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মামুন-উল-হাসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) তানভীর হায়দার শাওন এবং সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহাবুর রহমান শেখ।
আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, শরীয়তপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুজন কাজী।
এ সময় র‌্যালি ও আলোচনা সভায় ক্যাব শরীয়তপুরের সদস্যবৃন্দ, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সদস্যবৃন্দ, জেলা পর্যায়ের দফতর প্রধানগণ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, ভাষা সৈনিক, জেলা চেম্বার অব কমার্স ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, শরীয়তপুর জেলা কার্যালয় কর্তৃক বর্ণাঢ্য ট্রাক শো আয়োজন করা হয়েছে। সুসজ্জিত ট্রাক শোর মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন বিষয়ক জারিগান প্রচার করা হয়েছে।
এ সময় বক্তারা বলেন, বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবসটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমরা সকলেই ভোক্তা। তাই ভোক্তা অধিকার সম্পর্কে জানা ও সচেতন হওয়া জরুরী। তাছাড়া নিয়মনীতি মেনে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ করার জন্য স্থানীয় ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান তারা।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের শরীয়তপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুজন কাজী বলেন, যে সকল ভোক্তা-অধিকার বিরোধী কার্য ও অপরাধ করা যাবে না। যেমন- পণ্যের মোড়ক ইত্যাদি ব্যবহার না করা, মূল তালিকা প্রদর্শন না করা, সেবার মূল্য তালিকা সংরক্ষণ ও প্রদর্শন না করা, ধার্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য, ঔষধ বা সেবা বিক্রয়, ভেজাল পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, খাদ্য পণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্যের মিশ্রণ, অবৈধ প্রক্রিয়ায় পণ্য উৎপাদন বা প্রক্রিয়াকরণ, মিথ্যা বিজ্ঞাপন দ্বারা ক্রেতা সাধারণকে প্রতারিত করা, প্রতিশ্রুতি পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করা, ওজনে কারচুপি, বাটখারা বা ওজন পরিমাপক যন্ত্রে কারচুপি, পরিমাপে কারচুপি, দৈর্ঘ্য পরিমাপের কার্যে ব্যবহৃত পরিমাপক ফিতা বা অন্য কিছুতে কারচুপি, পণ্যের নকল প্রস্তুত বা উৎপাদন, মেয়াদ উত্তীর্ণ পন্য বা ঔষধ বিক্রয়, সেবা গ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্নকারী কার্য, অবহেলা ইত্যাদি দ্বারা সেবা গ্রহীতার অর্থ, স্বাস্থ্য, জীবনহানি, ইত্যাদি ঘটানো, মিথ্যা বা হয়রানিমূলক মামলা দায়ের, অপরাধ পুনঃসংঘটন ও বাজেয়াপ্তকরণ।


-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেইসবুক পাতা

-Advertisement-
-Advertisement-
error: Content is protected !!