সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং

ইফতার অনুষ্ঠানে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ -আহত-১০

ইফতার অনুষ্ঠানে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ -আহত-১০

ইফতার অনুষ্ঠানে দু’পক্ষের মাঝে দফায়-দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে মাদারীপুরের কালকিনিতে ।

এতে করে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০জন কর্মী-সমর্থক আতহ হয়েছেন। আহতেদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। রোববার সন্ধ্যায় কালকিনি উপজেলা সার্কিট হাউজে ইফতার অনুষ্ঠানে ইফতার সামগ্রী বিতরনকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। এসময় একাধিক বোমা বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে বলে জানা গেছে। তবে স্থানীয় সাংসদ ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ ও সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য তাহমিনা বেগমের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে সন্ধ্যা থেকে শুরু করে রাত ১০টা পর্যন্ত দফায়-দফায় চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। এ সংঘর্ষের ঘটনায় আজ সোমবার সকালে উভয় পক্ষের মাঝে ফের উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ান করা হয়েছে।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্রে যানা গেছে, কালকিনি পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রায় ৮শতাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করে। উপস্থিত সকল অতিথিদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরন কার্যক্রম শুরু করেন স্থানীয় লোকজন। এসময় প্রথমে স্থানীয় নাদিমের সাথে সালাউদ্দিনের কথার কাটা-কাটি হয়। এক পর্যায় এ বিষয়টি নিয়ে দু’পক্ষ সংঘষর্ষে জরিয়ে পরেন। পরে এ ঘটনা নিয়ে রাত ৯টার দিকে পূনরায় উভয় পক্ষের মাঝে দফায়-দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে করে নাদিম, দুলাল, সুমন, মুন্না, ইসমাইল, সরোয়ার, সাইফুল ও হৃদয়সহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০জন কর্মী সমর্থক আতহ হয়েছেন। আহতেদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এদিকে এ সংঘর্ষের ঘটনায় সকালে উভয় পক্ষের মাঝে ফের চড়ম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। তবে ঘটনা পর থেকে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ান করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি ইশতিয়াক আশফাক রাসেল বলেন, ‘ ইফতার সামগ্রী বিতরন নিয়ে দুপক্ষের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তবে ঘটনার পর থেকে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। উভয় পক্ষের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করায় পুলিশ টহল জোড়দার করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ’