বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং

শরীয়তপুরে মটরসাইকেল চালককে গুরুতর জখম

শরীয়তপুরে মটরসাইকেল চালককে গুরুতর জখম

পূর্ব  শত্রুতার জের ধরে শরীয়তপুর সদর উপজেলার উত্তর ভাষানচর গ্রামের ভাড়ায় মটরসাইকেল চালক শহীদুল ইসলাম মাদবর (২০) কে একলা পেয়ে সন্ত্রাসীরা হামলা করে গুরুতর জখম করে। ১৩ জুলাই (শুক্রবার) সন্ধ্যা ৭টার দিকে সদর উপজেলার উত্তর ভাষানচর আবু সাঝির মুদি দোকানের সামনের পাকা সড়কের উপর এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও পালং মডেল থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর সদর উপজেলার উত্তর ভাষানচর গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ মাদবরের ছেলে ভাড়ায় মটরসাইকেল চলক শহীদুল ইসলাম মাদবর (২০) সঙ্গে একই গ্রামের জসিম মাদবরের ছেলে জহিরুল মাদবর (২২) এর সম্প্রতি মোটরসাইকেলের ভাড়ার টাকা নিয়ে বাকবিতন্ডা হয়। তখন তাদের দু’জনের মধ্যে শত্রুতার সৃষ্টি হয়। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ১৩ জুলাই (শুক্রবার) সন্ধ্যা ৭টার দিকে শহীদুল ইসলাম মাদবর মটরসাইকেল নিয়ে আংগারিয়া বাজার থেকে বাড়িতে যাওয়ার সময় সদর উপজেলার উত্তর ভাষানচর আবু সাঝির মুদি দোকানের সামনের পাকা সড়কের উপর পৌঁছলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ওঁৎ পেতে থাকা জহিরুল মাদবর, আয়নাল মাদবর, জসিম মাদবর, শামীম মাদবর অজ্ঞাত দুই থেকে তিনজন মিলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে শহীদুলকে এলোপাথারীভাবে পিটাতে ও কোপাতে থাকে। তখন শহীদুল ইসলামের মাথায় কোপ লেগে গুরুতর জখম হয়, জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। আহত অবস্থায় স্থানীয়রা শহীদুল ইসলামকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। গুরুতর আহত অবস্থায় শহীদুল ইসলাম শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এ ঘটনায় শহীদুল ইসলামের ভাই দুদু মিয়া মাদবর বাদী হয়ে পালং মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। শহীদুল ইসলামের ভাই দুদু মিয়া মাদবর বলেন, আমার ভাইর উপর যারা হামলা করেছে, ভাইকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হোক। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জহিরুল মাদবরের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তাকে পাওয়া যায়নি। পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত চলছে। তদন্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।


error: Content is protected !!