শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ ইং, ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১শে মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ ইং

নড়িয়া পৌর মেয়রের উপর বোমা হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নড়িয়া পৌর মেয়রের উপর বোমা হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নড়িয়া পৌরসভার মেয়র মো. শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ীর উপর বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার বেলা ১১টায় নড়িয়া পৌরসভা কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনের আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র মো. শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ী, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি আঃ ওহাব বেপারী, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি হাসান রাড়ী প্রমূখ।
সংবাদ সম্মেলন থেকে পৌর মেয়র মো. শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ী বলেন, আমি আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী এনামুল হক শামীম এর নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট। গতকাল নির্বাচনী সভা শেষ করে রাত সাড়ে ৯টায় আমার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হই। পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড পাইকপাড়া গ্রামে পৌঁছলে রাতের আধাঁরে আমার গাড়ির সামনে ৪টি বোমা বিস্ফোরিত হয়। ঘটনার সাথে জড়িত নড়িয়া উপজেলা বিএনপি সভাপতি মোর্শেদ মাঝি, ও বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন ছৈয়ালকে চিনতে পেরেছি। বোমা বিস্ফোরণের বিষয়টি আমি আমার নেতা এনামুল হক শামীমকে ও নড়িয়া থানা পুলিশকে অবগত করি। নেতার নির্দেশে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গিয়ে মোর্শেদ মাঝি ও সালাউদ্দিন ছৈয়াল সহ ২৫ জনকে আসামী করে নড়িয়া থানায় মামলা করেছি। আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেছি। হামলাকারীরা আমাকে ও আমার নেতাকে বেছে নিয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যদি আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারে তাহলে শান্তিপূর্ণ ভাবে ৩০ তারিখের নির্বাচন সম্পন্ন করতে পারব।
সংবাদ সম্মেলন থেকে এনামুল হক শামীম বলেন, আমার প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ীর উপর বোমা হামলা হয়েছে। একই রাতে সখিপুর থানা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিকের বাসায় একই কায়দায় হামলা হয়েছে। বিএনপি-জামাত তাদের কার্যকলাপ আবার শুরু করছে। আমরা কোন বিচলিত হয়নি। বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসী কার্যক্রম প্রতিহত করার সাহস ও ক্ষমতা আওয়ামীলীগের প্রতিটি ইউনিটের রয়েছে। আমরা বিষয়টি সেভাবে দেখছি না। আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপর ছেড়ে দিয়েছি। তারা বিষয়টি নিশ্চয়ই দেখবে।
নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন বলেন, নড়িয়া আওয়ামীলীগের ঘাটি। আমাদের নেতাকর্মীদের মাঝে তিব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। তারা সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতে চায়। আমাদের নেতার অনুরোধে দলীয় নেতাকর্মীদের থামিয়ে রেখেছি। আমরা প্রশাসনকে অনুরোধ করবো অপরাধীদের বিরুদ্ধে তড়িত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য।


error: Content is protected !!