রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই সফর, ১৪৪২ হিজরী
রবিবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা বাশার ফকিরের উদ্যোগে ৫ হাজার নেতা-কর্মীদের অংশগ্রহন

শরীয়তপুরের আংগারিয়া বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে ইকবাল হোসেন অপু এমপি

শরীয়তপুরের আংগারিয়া বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে ইকবাল হোসেন অপু এমপি

শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

আংগারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মাষ্টার আনোয়ার কামালের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু এমপি ও শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও শরীয়তপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আলহাজ্ব আব্দুর রব মুন্সী।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মো. আবুল বাশার ফকির ৫ হাজার নেতা-কর্মী নিয়ে সেই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে যোগদান করেন। তিনি শরীয়তপুরের মাটি ও মানুষের নেতা জননেতা ইকবাল হোসেন অপু এমপি’র আশির্বাদ পেলে আংগারিয়া ইউনিয়নের সকল মানুষের পাশে থেকে সেবা প্রদান করতে প্রত্যাশি বলেও জানিয়েছেন।

২৯ আগস্ট শনিবার দুপুরে আংগারিয়া ইউনিয়নের সর্বস্তরের মানুষ দাদপুর-ভাষানচর নতুন বাজার কীর্তিনাশা নদীর সেতুর দক্ষিণ পাড়ে জমায়েত হতে থাকে। অনেকে আসে নদী পথে ট্রলার যোগে আবার অনেকে আসে সড়ক পথে অটোবাইক ও অটোভ্যান যোগে। আবার বিচ্ছিন্ন মিছিল নিয়ে পায়ে হেটে এসেও জমায়েত হয় সেখানে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মো. বাশার ফকির এবং সংরক্ষিত সদস্য সুফিয়া আক্তার, শাহিদা বেগম, ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য আ. কাদের ফকির ও শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ সহ-সম্পাদক কাজী শাহিনের নেতৃত্বে হাজার হাজার মানুষের অংশগ্রহনে অপু ভাই-অপু ভাই শ্লোগান তুলে মিছিলটি সভাস্থলের দিকে রওয়ানা হয়।

আংগারিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মো. আবুল বাশার ফকির জানায়, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু এমপির নির্দেশে কাজ করি। আওয়ামী লীগের সভা ও কর্মকান্ডের সংবাদ পেলে নেতাকর্মীদের নিয়ে সেখানে উপস্থিত হই। আমার পথপরিদর্শক ইকবাল হোসেন অপু এমপি আমাকে আংগারিয়া ইউনিয়নবাসীর সেবা করার সুযোগ করে দিলে সেই সুযোগ গ্রহন করব। আংগারিয়া ইউনিয়নকে মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত একটি আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গঠন করব। আজও আমি ৫ হাজার নেতা-কর্মী নিয়ে এই সভায় উপস্থিত হয়েছি। আগামীতেও আংগারিয়া ইউনিয়নবাসীর সুখ-দুঃখে পাশে থেকে ইউনিয়নবাসীর সেবা করব।

যুবলীগ নেতা কাজী শাহিন বলেন, বাঙ্গালি জাতির জনকের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে আবুল বাশার ফকির হাজার হাজার নেতা-কর্মী নিয়ে যোগদান করেছেন। সে আওয়ামী লীগের সকল কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করেন। আমি এমপি মহোদয় ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করব আংগারিয়া ইউনিয়নে যেন একজন যোগ্য প্রার্থীকে মনোনীত করা হয়। যে আংগারিয়া ইউনিয়নবাসীর ভাগ্যের উন্নয়ন করতে পারবে। সেই ক্ষেত্রে বাশার ফকিরের কথা সবার আগে চলে আসে। সে চেয়ারম্যান না হয়েও মানুষের সুখ-দুঃখে পাশে দাঁড়ায়।