বৃহস্পতিবার, ৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং, ২৬শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
আজ বৃহস্পতিবার | ৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং

মুজিববর্ষ উপলক্ষে শরীয়তপুর শহর বর্ণিল আলোকসজ্জায় সজ্জিত

মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ ২০২০ | ৪:৩১ অপরাহ্ণ | 65Views

মুজিববর্ষ উপলক্ষে শরীয়তপুর শহর বর্ণিল আলোকসজ্জায় সজ্জিত

১৭ই মার্চ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মশতবার্ষিকী। ১৯২০ সালের আজকের এই দিনেই পৃথিবীতে এসেছিলেন এই মহান নেতা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ২০২০ সালের ১৭ই মার্চ হতে ২০২১ সালের ১৭ই মার্চ পর্যন্ত এ এক বছরকে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে ব্যাপক আয়োজন করেছিলেন বর্তমান সরকার, সারা বাংলাদেশে তৈরি হয়েছিলো এক উৎসব মুখর পরিবেশ, কিন্তুু বিশ্বব্যাপী বিরাজমান ভয়ানক আতঙ্ক করোনা ভাইরাসের কারনে সে আয়োজন অনেকটাই আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে।
তবে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী অর্থাৎ মুজিববর্ষ উপলক্ষে দলীয় সিন্ধান্ত মোতাবেক, দেশ ও জাতির সুস্থতার বিষয় মাথায় রেখে সারা দেশের ন্যায় শরীয়তপুরেও জনসমাগম বন্ধ রাখা হলেও শরীয়তপুর শহর সাজানো হয়েছে বর্ণিল আলোকসজ্জায়। শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ইকবাল হোসেন অপু’র উদ্যোগে ও জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে শরীয়তপুর সদরের প্রেমতলা থেকে মনোহর-বাজার মোড় পর্যন্ত প্রায় ৬ কিলোমিটার রাস্তার দু-পাশ রঙ্গিন এলইডি বাতির আলোয় বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। এছাড়াও শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে আওয়ামীলীগ ও আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দগণ স্থানীয় সাংসদ ইকবাল হোসেন অপু’র পক্ষ থেকে এবং তাদের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে মুজিববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে তৈরি করেছেন প্রায় অর্ধশতাধিক গেইট, শতাধিক ফেষ্টুন ও ব্যানার।
উল্লেখ, বাংলাদেশ নামটির সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামটির সাথে এক মধুর সম্পর্ক বিরাজমান। শেখ মুজিবুর রহমানের বজ্রকণ্ঠ ১৯৭১ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের বাঙালি জনগোষ্ঠিকে মুক্তি ও স্বাধীনতার পথ নির্দেশনা দিয়েছিল। তিনি বলেছিলেন “…মনে রাখবা- রক্ত যখন দিয়েছি, রক্ত আরও দেব, এদেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়ব ইনশাল্লাহ। এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম-এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। জয় বাংলা। “১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ ঢাকার রেস কোর্স ময়দানের এক জনসভায় এই বজ্রঘোষণার মাধ্যমে শেখ মুজিব স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন এবং জনগণকে সর্বাত্মক অসহযোগ আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত করেছিলেন।
শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম ১৯২০ সালের ১৭ই মার্চ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায়। তার বাবা শেখ লুৎফর রহমান ছিলেন গোপালগঞ্জ দায়রা আদালতের সেরেস্তাদার এবং মা সায়েরা খাতুন ছয় ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয় সন্তান। খুবই অল্প বয়সে তিনি বিয়ে করেছিলেন সম্পর্কে আত্মীয় বেগম ফজিলাতুন্নেসাকে।


-Advertisement-
সর্বশেষ  
জনপ্রিয়  

ফেইসবুক পাতা

-Advertisement-
-Advertisement-
error: Content is protected !!