Thursday 25th July 2024
Thursday 25th July 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

ভেদরগঞ্জে মধ্যরাতে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যাচেষ্টা, স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্থানীয়রা

ভেদরগঞ্জে মধ্যরাতে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যাচেষ্টা, স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্থানীয়রা

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যাচেষ্টাকালে ছুরিসহ স্বামী রায়হান মল্লিককে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা।
মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় উপজেলার চরকুমারিয়া ইউনিয়নের ফয়েজউল্লাহ মোল্লা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত এক বছর আগে পারিবারিকভাবে ফয়েজউল্লাহ মোল্লা গ্রামের ফরিদ মোল্লার মেয়ে তনিমা আক্তার তন্নির (২০) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী ডিএমখালী ইউনিয়নের মোতালেব মল্লিকের ছেলে রায়হান মল্লিকের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যৌতুকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া চলছিল। একপর্যায়ে গত তিন মাস আগে বাবার বাড়ি চলে আসে তনিমা।ঈদুল আজহার দুই দিন পরে তনিমার স্বামী তাদের বাড়িতে এলে কয়েক দিন তাদের সম্পর্ক বেশ ভালোভাবেই চলছিল।
তবে বুধবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে হঠাৎ করে তাদের দুজনের মধ্যে ফের ঝগড়া শুরু হয়। একপর্যায়ে রায়হান একটি ধারালো ছুরি দিয়ে তনিমার গলায় আঘাত করেন। এতে তনিমা জখম হলে চিৎকার শুরু করেন। এতে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠান। এ সময় স্থানীয়রা রায়হানকে আটকে রেখে পরে পুলিশে দেন।
তনিমার বড় ভাই তানজিল আহমেদ মোল্লা বলেন, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমার বোনের ওপর নির্যাতন করছিল রায়হান। আমার বোনকে হত্যার উদ্দেশ্যে সে ছুরি দিয়ে আঘাত করেছে, আমরা তার বিচার চাই।
এ বিষয়ে সখিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদুর রহমান বলেন, স্থানীয়রা রায়হানকে আটক করে রেখেছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত রায়হানকে ধারালো ছুরিসহ আটক করা হয়েছে।