বুধবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
বুধবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরে ভেজাল মবিল কারখানা জব্দ, আটক-২

শরীয়তপুরে ভেজাল মবিল কারখানা জব্দ, আটক-২
শরীয়তপুরে ভেজাল মবিল কারখানা জব্দ, আটক-২

শরীয়তপুর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে ভেজাল মবিল এর কারখানাসহ ১ টি দোকানের সমস্ত মালামাল জব্দ করেছেন পালং থানা পুলিশ। এই চক্রটি বিভিন্ন ব্রান্ডের মবিলের ক্যানসহ সুপারভি’ সহ বিভিন্ন ব্রান্ডের মবিল বোতলজাত করে বাজারজাত করে আসছেন।
এমন সংবাদের ভিত্তিতে বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন ভেজাল মবিল কারখানায় গিয়ে পালং মডেল থানা পুলিশ দুই জনকে আটক করেন। সেই সাথে কোটি টাকার বিপুল পরিমাণ মালামাল জব্দ করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সোহেল সরদার (৩৫) ও আকাশ সরদার (১৭)।
২২ মার্চ রবিবার সরেজমিনে গেলে আশেপাশের ব্যবসায়ীরা বলেন, রুবেল সরদার ঢাকা নবাবপুর তার মামার ভেজাল মবিল তৈরির কারখানা থেকে কাজ শিখে এসে শরীয়তপুর কারখানা খুলে কাজ করছে। তারা বিভিন্ন কোম্পানির মবিলের ডিলার নিয়ে ভেজাল মবিল মিশিয়ে বিক্রি করেন। তারা ভেজাল মোবিল অল্প টাকায় বিক্রি করাতে আমরা ভালো কোম্পানির মবিল বিক্রি করতে পারিনা, এর পূর্বেও জাজিরা নাওডোবা তাদেরই ভেজাল মবিল কারখানায় র‌্যাব-৮ অভিযান করে ভেজাল মবিল কারখানায় বিপুল পরিমাণ ভেজাল মবিল উদ্ধার করে। তার কিছুদিন পরেই আবার শুরু করে শরীয়তপুর শহরে পূর্বের ন্যায় ভেজাল মবিলের কারবার।
পুলিশ কর্মকর্তারা জানান তারা সুপারভি, সুপার ফোরটি, ক্যাস্ট্রলসহ উন্নত মানের নকল প্যাকেটে ভেজাল মবিল বোতলজাত করে বাজারে খুচরা ও পাইকারি বিক্রি করেন।
পালং মডেল থানার ওসি আসলাম উদ্দিন বলেন, তথ্য পেয়ে এসআই রুপকরকে দায়িত্ব দেই। এসআই রুপকর ও এসআই মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান ২১ মার্চ দিবাগত রাত ১২ টা থেকে শুরু করে ২২ মার্চ দুপুর ১২ টা পর্যন্ত এলাকায় তল্লাশি করে ৩ টি গোডাউন ও দুইটি দোকানের সমস্ত মালামাল জব্দ করেন। বিপুল পরিমাণ মবিলের ব্যারেল, বিভিন্ন ব্রান্ডের মবিলের বোতল, নকল সীলসহ মবিল তৈরির ক্যামিকেল উদ্ধার করেছি। সেইসাথে রুবেল সরদারের ভেজাল মবিলকারখানা সীলগালা করা হয়েছে। তাদের জন্য অনেক গাড়ির ইঞ্জিন বিকল হয়ে গেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এই চক্রের সাথে যেই জড়িত থাকবে কাউকে ছাড় দেয়া যাবে না। এ ধরনের অভিযান আমাদের অব্যাহত থাকবে।