শুক্রবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২০ ইং, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী
শুক্রবার, ১৪ই আগস্ট, ২০২০ ইং

জা‌জিরার পাইনপাড়ায় অ‌গ্নিকা‌ন্ড, ৬টি ঘর পু‌রে ছাই

জা‌জিরার পাইনপাড়ায় অ‌গ্নিকা‌ন্ড, ৬টি ঘর পু‌রে ছাই
জা‌জিরার পাইনপাড়ায় অ‌গ্নিকা‌ন্ড, ৬টি ঘর পু‌রে ছাই

শরীয়তপুরের জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়নের মির্জা হযরত আলী হাই স্কুলের শিক্ষার্থী আঁখি আক্তারের ধর্ষক সাগর সিকদারের বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ধর্ষিতার পরিবার।

১২ ফেব্রুয়ারি বুধবার দুপুরে শরীয়তপুরে সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আঁখির মা ও মামলার বাদী রুমা বেগম এবং বাবা লিটন মোল্যা।

এসময় আঁখির মা ও মামলার বাদী রুমা বেগম জানান, বড় কান্দি ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সুধন্য মন্ডলের কান্দি গ্রামের লিটন মোল্যার মেয়ে আঁখি আক্তারকে ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর বুধবার বিকেলে স্থানীয় জলিল বেপারীর ছেলে শওকত বেপারীর বাড়িতে ডেকে নিয়ে একটি ঘরে আটকে রাখে। পরে স্থানীয় দুলাল শিকদারের ছেলে ধর্ষক সাগর শিকদার ওই ছাত্রীর মুখ আটকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এঘটনায় মামলা হলে ধর্ষক সাগর সিকদার ও তার সহযোগী শওকত বেপারী গ্রেপ্তার হয়। এদিকে সাগর সিকদার জামিনে বের হয়ে; সে ও তার বাবা দুলাল সিকদার, দাদা রশিদ সিকদার এবং কারাগারে থাকা শওকত বেপারীর স্বজনরা ওই ছাত্রীর মা ও মামলার বাদী রুমা বেগম, বাবা লিটন মোল্যা এবং তার পরিবারের সদস্যদের ওপর বোমা হামলা সহ নানান নির্যাতন চালায়। এছাড়াও ওই ছাত্রীর পরিবারের সদস্যদের নানাভাবে জীবননাশের হুমকি দিয়ে আসছে। প্রাণভয়ে তারা নানা স্থানে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তারা অবিলম্বে ধর্ষক সাগর সিকদার ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চায়।
তারা আরও বলেন, আমার মেয়ে লজ্জায়-ঘৃণায় স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। এখনও ওরা আমাদের নানান ভাবে উক্ত্যক্ত করছে। আমার মেয়ের কিছু হলে ওরাই দায়ী থাকবে।

এব্যাপারে শরীয়তপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম আশরাফুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।