• ব্রেকিং নিউজ

    পালং জাজিরায় কেউ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেবেন সংসদ সদস্য অপু

    রুদ্রবার্তা প্রতিবেদক

    প্রকাশিত: ০১ আগস্ট ২০১৯ সময়: ৬:২০ অপরাহ্ণ 369 বার

    পালং জাজিরায় কেউ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেবেন সংসদ সদস্য অপু

    বর্তমানে সারা বাংলাদেশ সবচাইতে আলোচিত সমস্যার নাম ডেঙ্গুজ্বর। ইতিমধ্যে এ সমস্যা মহামারী আকার ধারন করছে। মারা গেছে কয়েক জন। তবে শরীয়তপুর ১ (পালং-জাজিরা) আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু তার নির্বাচনি আসনে যদি কেউ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয় তাহলে তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়ার ঘোষনা দিয়েন। বুধবার (৩১শে জুলাই) দুপুরে সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপুর ভেরিফাইড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক পেজে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তিনি এ তথ্য জানান এবং তিনি তার সাথে যোগাযোগ করার জন্য দুটো মোবাইল নাম্বার ও দিয়েছেন।

    ফেইসবুক পেজে ঘোষনায় ইকবাল হোসেন অপু বলেন, শরীয়তপুরের(পালং-জাজিরায়) কেউ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলে আক্রান্ত রোগী’র চিকিৎসার সকল দায়িত্ব গ্রহন করার ঘোষণা করছি—-
    সকলেই জানেন, সারা দেশেই ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হওয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে, আমাদের শরীয়তপুরও এই রোগ থেকে মুক্ত নয়। এই অবস্থায় পালং-জাজিরায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত সকল মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছি আমি। কেউ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হলে চিকিৎসার যেকোন ধরনের সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন এই দুটি মোবাইল নাম্বারেঃ
    ১. ০১৯১৪৯৫২০২০
    ২. ০১৭১২২২১২৭৯
    কেউ আতংকিত হবেন না- ইনশাআল্লাহ্‌ আমি সর্বাত্মক চেষ্টা করবো সকলের পাশে থাকার। দোয়া করি, মহান আল্লাহ্‌ যেন কাউকেই এই ভয়াবহ রোগ আক্রান্ত না করেন। আর সকলে ডেঙ্গুজীবাণুবাহী এডিস মশা প্রতিরোধে সচেতন থাকুন, নিজ নিজ বাসস্থান- কর্মস্থলের আশপাশ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন।

    প্রসঙ্গত, গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শরীয়তপুর ১ (পালং-জাজিরা) আসন থেকে বিপুল পরিমাণ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয় এক সময়ের তুখোড় ছাত্রনেতা আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকায় মাঝি ইকবাল হোসেন অপু। ইকবাল হোসেন অপু ১৯৬৪ সালে ৪ সেপ্টেম্বর মা বাবার মুখ আলো করে পৃথিবীর এসেছিলেন। জননেতা ইকবাল হোসেন অপুর পিতার নাম এডভোকেট মরহুম সুলতান মিয়া এবং মায়ের নাম সৈয়দা আঞ্জুমান বেগম। ইকবাল হোসেন অপুর পিতা শরীয়তপুরের একজন প্রবীণ আইনজীবী ছিলেন এবং বার বার শরীয়তপুর আইনজীবী পরিষদের সভাপতি ছিলেন ও শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দায়িত্ব মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত সততার সাথে পালন করেন। একনিষ্ঠ আওয়ামী পরিবারে জন্ম ও পিতার আওয়ামীলীগের প্রতি অগাত ভালবাসার পরিপ্রেক্ষিতেই কৈশোর কাল থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারন করে ছাত্র রাজনীতির সাথে জরিত ইকবাল হোসেন অপু।
    ইকবাল হোসেন অপু ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতিরর সাথে সম্পৃক্ত, ছাত্রলীগ দিয়েই তার রাজনীতির হাতে খড়ি। ইকবাল হোসেন অপু মাদারীপুর সরকারী নাজিমউদ্দিন কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সুনামের সহিত অর্নাস ও মাষ্টার্স শেষ করেন। তিনি ছাত্র রাজনীতি কালে প্রথমে মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন এরপরে তিনি মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয় এবং সুনামের সাথে তার দ্বায়িত্ব পালন করে। এরপর সে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়, এরপর সে দীর্ঘ দিন ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ছিলেন, এরপর সে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়। ছাত্র রাজনীতির সময় অতিবাহিত হওয়ার পর সে ২০০৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে। এরপর তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ২০ তম সম্মেলনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়।

    :: শেয়ার করুন ::

    Comments

    comments

    সংবাদটি ফেইসবুকে শেয়ার করুন

    দৈনিক রুদ্রবার্তা/শরীয়তপুর/০১ আগস্ট ২০১৯/


    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক রুদ্রবার্তা

  • error: নিউজ কপি করা নিষেধ!!