মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরী
মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ ইং
শরীয়তপুর সদর উপজেলার রুদ্রকর ইউপি’র তিন বারের চেয়ারম্যান 

বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন তালুকদারকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন তালুকদারকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

শরীয়তপুর সদর উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়ন পরিষদের তিন বারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জহির উদ্দিন তালুকদারকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২ মার্চ) বাদ আছর রুদ্রকর ইউনিয়নের পূর্ব চররোসুন্দী সোনাবন মাদ্রাসা মাঠে জানাজা নামাজ শেষে ওই মাদ্রাসা কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

জানাজার আগে তাকে গার্ড ওব অনার প্রদান করা হয়। গার্ড ওব অনারে অংশ নেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনদীপ ঘড়াই ও জেলা পুলিশের একটি দল। জানাজা নামাজে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব মুন্সী, পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. জাহাঙ্গীর হোসেন বেপারী, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, রুদ্রকর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ঢালী, চিতলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম হাওলাদার, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ঢালী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ শিকদার সহ প্রায় ৫ হাজারের অধিক লোক অংশ নেন।

সোমবার রাতে ঢাকার একটি হাসপাতালে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জহির উদ্দিন তালুকদার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন শুভাকাংখী রেখে গেছেন। তিনি সুবচনী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি ছিলেন। এছাড়া পূর্ব চররোসুন্দী সোনাবন মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থান ও এতিমখানা তিনি প্রতিষ্ঠা করেন। স্বর্ণপদক প্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন তালুকদার দীর্ঘ ১৯ বছর রুদ্রকর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন করেন।