বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ ইং, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী
বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ ইং

কুরবানী উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বসছে ভেদরগঞ্জের সখিপুর পশুর হাট

কুরবানী উপলক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বসছে ভেদরগঞ্জের সখিপুর পশুর হাট

সারাদেশে বেশির ভাগ জায়গায় যেখানে সামাজিক দূরত্ব, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে ব্যর্থ হচ্ছে গরুর হাটের ইজাদাররা। শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুরে ঐতিহ্যবাহী গরু ছাগলের হাট। বাজারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হয়েছে ব্যতিক্রমী এক কোরবানীর পশুর হাট।

‘সারাদেশে যখন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বেড়েই চলছে। ঠিক তেমনি সময় পবিত্র ঈদুল -আযহা কে সামনে রেখে প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলার হাট বাজারে নজরদারি রেখেছে, যাতে করে হাটে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ক্রেতা-বিক্রেতারা গরু ছাগল কেনা বেচা করতে পারেন।’

নিয়মতান্ত্রিকভাবে সপ্তাহে প্রতি বুধবার বসছে এই পশুর হাট। হাটে শরীয়তপুর জেলাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ক্রেতা এবং বিক্রেতা আসে এখানে গরু ছাগল কেনার জন্য এটি একটি অন্যতম পশুর হাট।

সখিপুর বাজার পশুর হাটে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সখিপুর ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিশাল এক পশুর হাট। এ হাটে ক্রেতা-বিক্রেতাদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক ও হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছে হাট কর্তৃপক্ষ। এছাড়া সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)তানভীর আল-নাসীফ, ভেদরগঞ্জ (সহকারী কমিশনার ভুমি ) শংকর চন্দ্র বৈদ্য, এক্সিকিউটিভ মেজিস্টিস অভিজিৎ সুত্রধর, আসাদুজ্জামান আসাদ হাওলাদার অফিসার ইনচার্জ সখিপুর থানা পুলিশ ও আনসার ব্যাটেলিয়ান সদস্যদের সহায়তা নিয়ে

(০৭ জুলাই) বুধবার দুপুর ১২টার দিকে সখিপুর বাজারে পশুর হাট পরিদর্শনে আসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সখিপুর বাজার ইজারাদার, রাসেল আহমেদ পলাশ সরদার, ইউপি সচিব কবির হোসেন মুন্সী, সাব্বির আহমেদ মাদবর, আতিকুর রহমান সোমেল সরদার, মোঃ রাতুল সরদার, রবিন সরদার সহ অনান্য নেতৃবৃন্দ।

এসময় ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর আল-নাসীফ দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, ভেদরগঞ্জ (সহকারী কমিশনার ভুমি) ও শরীয়তপুর এক্সিকিউটিভ মেজিস্টিস এবং অফিসার ইনচার্জ সখিপুর থানা ও পুলিশ আনসার ব্যাটেলিয়ান এর সহযোগিতায় সখিপুর গো- হাট পরিদর্শনে আসি। দুপুর থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে, বৃষ্টির কারনে মানুষ অনেক সময় এলোমেলো হয়। কিন্তু আমরা সামাজিত দূরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি, জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। সবাইকে আইন মেনে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।