সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরী
সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ ইং

শরীয়তপুর নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানকে বোমা নিক্ষেপ!

শরীয়তপুর নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানকে বোমা নিক্ষেপ!

শরীয়তপুর সদর উপজেলার তুলাসার ইউপি’র নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান জামাল হোসাইন ফকিরকে হত্যার উদ্দেশ্যে বোমা-হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন চেয়াম্যানের ভাই কামাল ফকির। অন্যদিকে অভিযুক্ত জাহিদ ফকির পাল্টা অভিযোগ করেছেন।

সরেজমিন ও অভিযোগসূত্রে জানা যায়, সোমবার (১৭ জানুয়ারী) সকাল অনুমান ৯ টার দিকে বোমা, ধারালো রাম দা, ছেন দা, লোহার রড, টেটা, শরকি, দেশীয় মারাত্বক জীবন নাশক অস্ত্র-সস্ত্রসহ লাঠিসোটা ইত্যাদি নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন আড়িগাঁও বাজারে চেয়ারম্যান জামাল হোসাইন ফকিরের উপর সাবেক চেয়ারম্যান জাহিদ ফকিরের নির্দেশে শোভন ফকির, নাছিম মুন্সী, তাজেল ঢালীসহ আরো অজ্ঞাতনামা প্রায় ৪০ জন বোমা নিক্ষেপ করে। এসময় আল আমিন বেপারী চেয়ারম্যান জামাল ফকিরকে বাঁচাতে আসলে তিনি বাম পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে বোমার আঘাতে গুরুত্বর জখম হোন। এনিয়ে বর্তমানে তুলাসার ইউনিয়নে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আল আমিন বর্তমানে শরীয়তপুর সদর হামপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চেয়ারম্যান জামাল হোসাইন ফকির জানান, আমি ইউনিয়ন পরিষদে যাওয়ার সময় আমার উপর অতর্কিত হামলা করেছে তারা। আমি থানায় আসছি মামলা দায়ের করতে।

হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম জাহিদ ফকির পাল্টা অভিযোগ করে বলেন, আমি আমার কয়েকজন কর্মীসহ আমার ক্লাবে বসে ছিলাম। তারাই আমার উপর হামলা করে এখন আমার উপর দোষ চাপাচ্ছে। আমিও মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আখতার হোসাইন মুঠোফোনে জানান, ঘটনার সাথে সাথে আমার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসছে। একপক্ষের অভিযোগ মাত্রই পেয়েছি, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
#