বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং

নিরন্তর প্রতীক্ষা

নিরন্তর প্রতীক্ষা

নিরন্তর প্রতীক্ষা

-শেখ মফিজুর রহমান

নাগরিক জীবনে ব্যস্ত সবাই
কখন সূর্য ওঠে আর কখন অস্ত যায়
কেউ নজ রাখে না।
এলার্ম ঘড়ি আছে সবার মোবাইলে
সময়ের হিসাব রাখা কত সহজ!
কিন্তু আমি অপেক্ষা করি নতুন সূর্যোদয়ের
প্রতিটি সূর্যোদয়ে মানে নতুন দিন
নতুন আশা, নতুন স্বপ্ন-
তাই হে সূর্য! আমি
তোমার জন্য প্রতীক্ষা করি।

রাতের তারাভরা আকাশকে দেখলে মনে হয়
কোনো অভিমানী বালিকা তার মুক্তোমালা
ছড়িয়ে দিয়েছে আকাশময়।
বৈদ্যুতিক লাল নীল মরিচ বাতির ঝলকানিতে
এক মুঠো মুক্তো ছিটানো মায়া ভরা রাতের আকাশের জন্য
কেউ প্রতীক্ষা করে না।
কিন্তু, আমি প্রতীক্ষা করি তারাভরা আকাশের জন্য
তারকা-সজ্জিত আকাশ মানে
মুগ্ধতা, বিস্ময় আর আবেশের মাখামাখি
তাই তারাভরা রাতে-
তোমার জন্য আমি প্রতীক্ষা করি।

দিনের পর দিন বেড়ে উঠেছে শহর
হারাচ্ছি গাছপালা, হারাচ্ছি সবুজ
জানালা দিয়ে চোখ মেললেই
গর্বিত উদ্ধত উঁচু উঁচু ভবন দেখা যায়।
সবুজ বন, সবুজ গাছ আর পাখির ডাকের জন্য
এখন কেউ আর অপেক্ষা করে না।

আমি এই ইট পাথরের ফাঁকেই
বেড়ে উঠতে দেখেছি অবাধ্য এক গাছের চারাকে
তার অস্তিত্ব জানান দিচ্ছে
এই নগরায়ণের বিরুদ্ধে সরব বিদ্রোহ-
আমি এই সবুজ বিপ্লবের জন্য উদগ্রীব
হয়ে প্রতীক্ষা করি।

লেখক: কবি শেখ মফিজুর রহমান,
জেলা ও দায়রা জজ, শরীয়তপুর।


error: Content is protected !!