শনিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ ইং, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ২৬শে নভেম্বর, ২০২২ ইং

দশ বছর পর শরীয়তপুরে জাতীয় পার্টির সম্মেলন

দশ বছর পর শরীয়তপুরে জাতীয় পার্টির সম্মেলন

দীর্ঘ ১০ বছর পর অনুষ্ঠিত হলো শরীয়তপুর জেলা জাতীয় পার্টি দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন। ১৫ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলে এ সম্মেলন। জেলা জাতীয় পার্টির আয়োজনে শরীয়তপুর পৌরসভা অডিটোরিয়ামে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে এবার দলের শীর্ষ পদগুলোতে পরিবর্তনের তেমন সম্ভাবনা নেই। সম্মেলনে ১০৮ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা করা হবে বলে জানা গেছে।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালের ৯ জুন শরীয়তপুর জেলা জাতীয় পার্টির সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিলো। ওই সম্মেলনে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান (মাসুদ) ও জাফর খান কালাম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর দুই বছর পর পর কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির কাউন্সিল অধিবেশন হলেও শরীয়তপুর জেলা জাতীয় পার্টির কোনো সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশন হয়নি। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের নির্দেশনায় শনিবার শরীয়তপুর জেলা কমিটির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিতন হয়।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব সাহিদুর রহমান টেপা। প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন রাজু। উদ্বোধক ছিলেন, জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাহিরুল ইসলাম জহির। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, শেখ আলমগীর হোসেন।
দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন, শরীয়তপুর জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান (মাসুদ)।
এ সময় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সদস্য এমএ হান্নান, জাতীয় কৃষক পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক লিয়াকত হোসেন চাকলাদার, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য মম ওয়াসিম খোকন, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব বদরুল আলম নান্নু মুন্সী, যুগ্ম আহবায়ক সুলতান আহাম্মদ সরকার, সদর উপজেলা সভাপতি সুদীর চন্দ্র ধরসহ জেলা, উপজেলা ও অঙ্গসহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব সাহিদুর রহমান টেপা বলেন, জাতীয় পার্টি ছাড়া কোন দলের কাছে দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। তাই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে নির্বাচিত করতে হবে। তাই পার্টির সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।


error: Content is protected !!