Thursday 30th May 2024
Thursday 30th May 2024

Notice: Undefined index: top-menu-onoff-sm in /home/hongkarc/rudrabarta.net/wp-content/themes/newsuncode/lib/part/top-part.php on line 67

গলায় ওড়না পেচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিলো শিশু মরিয়মের লাশ

গলায় ওড়না পেচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিলো শিশু মরিয়মের লাশ

নানার বাড়িতে বড় হওয়া মরিয়ম (১১) নামের একটি শিশু গলায় ওড়না পেচিয়ে ঘরের আরার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় ছিলো। দুপুরের খাবারের জন্য ডাকতে গিয়ে এই অবস্থা দেখে মামা শফি আলম শিকদার (২৫) ও তার মা দ্রুত লাশটি নামিয়ে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে ঘটনাটি ঘটে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার মুলনা ইউনিয়নের জয়সাগর গ্রামের হাচেন শিকদারের বাড়িতে। বাবা মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় সংসার ভাঙ্গার পর মা হাসি আক্তার (৩০) এর বিয়ে হয় অন্যত্র, তবে হাসি আক্তার ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করতেন বিদায় ছোট্ট থেকে মরিয়মকে তার নানা বাড়িতেই রেখেছিলেন।

জাজিরা থানা পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিহত মরিয়ম (১১) এর বাবা মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় ঘুরে বেড়ান। যার ফলে মেয়েটির বাবা বাড়ি জাজিরা পৌরসভার হরিয়াশায় হলেও সে থাকতো মুলনার জয়সাগরে অবস্থিত তার নানা বাড়িতে। সেখানে থেকেই পড়াশোনা করতো জাজিরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণিতে।

এদিকে নিহত মরিয়মের মা হাসি আক্তার তার বাবা এবং মেয়ে মরিয়ম দুজনকেই মানসিক ভারসাম্যহীন বলে মেয়ে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানালেও দাদী রোকেয়া বেগমের দাবি তার নাতনী মরিয়মকে হত্যা করা হয়েছে।

জাজিরা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: সুজন হক জানান, মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে শুনেছি। আমরা লাশটি উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। আপাতত একটি অপমৃত্যু মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।