সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ ইং, ১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরের মাঝ পদ্মায় গরুর ট্রলারে ডাকাতি, বিক্রির সময় তিন ডাকাতকে গণধোলাই

শরীয়তপুরের মাঝ পদ্মায় গরুর ট্রলারে ডাকাতি, বিক্রির সময় তিন ডাকাতকে গণধোলাই
শরীয়তপুরের মাঝ পদ্মায় গরুর ট্রলারে ডাকাতি, বিক্রির সময় তিন ডাকাতকে গণধোলাই

শরীয়তপুরের পদ্মা নদীতে গরুর ট্রলারে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতি করে নিয়ে যাওয়া গরু বিক্রির সময় তিন ডাকাতকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। শনিবার ভোর রাতে নড়িয়া উপজেলার চরআত্রা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ডাকাতরা হলেন, নড়িয়া উপজেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ডাসারগাঁও এলাকার মৃত রহমতুল্লাহ বেপারীর ছেলে এবাদুল বেপারী (৩২), বিশুরগাও এলাকার মৃত মঙ্গল বেপরীর ছেলে সেলিম বেপারী (৫০) ও নওপাড়া তাতিকান্দি এলাকার সাহেব আলী বেপারীর ছেলে নূরে আলম বেপারী (২৬)।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) কামরুল হাসান বলেন, রাত ১২টার দিকে চাদপুর থেকে ব্যবসায়ীরা ট্রলার দিয়ে গরু নিয়ে শরীয়তপুরে আসছিলেন। মাঝ পদ্মায় একদল ডাকাত গরুর ট্রলার থামিয়ে ৭টি গরু সহ ট্রলার ডাকাতি করে নড়িয়া উপজেলার বিচ্ছিন্ন এলাকা চরআত্রা নিয়ে যায়। সেখানে গভীর রাতে এক গরু ব্যবসায়ীর কাছে ডাকাতি করা গরু বিক্রির সময় এলাকার লোকজন ধাওয়া দিয়ে তিন ডাকাতকে ধরে গণধোলাই দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার ভোরে তিন ডাকাতকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। এ বিষয়ে অধিক তদন্ত চলছে।