বুধবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
বুধবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
রাক্ষুসে সাংবাদিকদের তালিকা হচ্ছে : কক্সবাজারে বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ

সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফাকে এক লক্ষ টাকা দিয়ে সহায়তা প্রদান করল বিএমএসএফ

সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফাকে এক লক্ষ টাকা দিয়ে সহায়তা প্রদান করল বিএমএসএফ

সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনকারী রাক্ষুসে সাংবাদিকদের নাম ও তালিকা প্রকাশের ঘোষণা দিয়েছে বিএমএসএফ। রোববার ২০ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার জেলা পরিষদ হল রুমে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম সাধারণ সম্পাদক ও সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির বৈঠকে সংগঠনের সমন্বয়কারী আহমেদ আবু জাফর প্রধান অতিথি হিসেবে এই ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, অন্য পেশার লোকজন ছাড়াও নিজ পেশার সাংবাদিক দ্বারা সাংবাদিকরা মামলা হামলা দ্বারা নির্যাতিত ও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর এখনই সময়। কক্সবাজারে পুলিশি নির্যাতন ও কতিপয় সাংবাদিক নামধারী রাক্ষুসে সাংবাদিকদের ইন্ধনে বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কর্তৃক নির্যাতনের শিকার ফরিদুল মোস্তফার চিকিৎসার্থে আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি স্ব স্ব জেলা থেকে রাক্ষুসে সাংবাদিকদের তালিকা প্রনয়ন করে প্রশাসনের নিকট জমা দেওয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ’র সভাপতি মোঃ মিজান উর রশীদ মিজান। বিএমএসএফ কক্সবাজার জেলার সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ খারুল আলম, কক্সবাজারের সিনিয়র সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক মুকুল, কক্সবাজার উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি দৈনিক ৭১ এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক রুহুল আমিন সিকদার, বাংলাভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মোর্শেদুর রহমান খোকন, নির্যাতিত সাংবাদিক ছালামত উল্লাহ, সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির চকরিয়া শাখার সভাপতি ছোটন কান্তি নাথ প্রমুখ।

সভার শেষান্তে নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক আহমেদ আবু জাফরকে ফুলেল শুভেচ্ছার মাধম্যে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ)এ যোগদান করেন।

মতবিনিময় সভা শেষে বিএমএসএফ’র নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের মাধ্যমে নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফাকে নগদ ১ লক্ষ টাকা চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করেন।

এ সময় নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফার সুখ-দুঃখের বিষয়গুলো জেলা প্রশাসক গুরুত্ব সহকারে শোনেন। জেলা প্রশাসক তার ওপর ঘটে যাওয়া অমানবিক ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সেই সঙ্গে ফরিদের বিষয়ে আন্তরিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সাক্ষাতকালে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো: শাজাহান আলিসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় নেতা এসএম জীবন, এমএ আকরাম, শারমিন সুলতানা মিতু, সোহাগ আরেফিন, ফয়সাল আজম অপু, কবির নেওয়াজ, জুয়েল খন্দকারসহ সোহেল সরদার, হুমাউন কবির, জানে আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।