মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ই জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরী
মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং

শ্রীমঙ্গলে টি টেস্টিং এন্ড কোয়ালিটি কন্ট্রোল প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন

শ্রীমঙ্গলে টি টেস্টিং এন্ড কোয়ালিটি কন্ট্রোল প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন

বাংলাদেশ চা বোর্ডের শ্রীমঙ্গলস্থ ২৫ সেপ্টেম্বর রোববার প্রকল্প উন্নয়ন ইউনিটে (পিডিইউ) চা উৎপাদন এবং ব্যবসার সাথে জড়িত ব্যক্তিবর্গদের দক্ষতা উন্নয়নকল্পে পিডিইউ’র পরিচালক ড. একেএম, রফিকুল হক এর সভাপতিত্বে আয়ােজিত “টি টেস্চিং এন্ড কোয়ালিটি কন্ট্রোল” প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত
ছিলেন চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো: আশরাফুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ড. মােঃ ইসমাইল হােসেন এবং বাংলাদেশীয় চা সংসদের চেয়ারম্যান এম শাহ আলম।

এছাড়া অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশীয় চা সংসদের কমিটির সদস্য, তাহসিন আহমেদ চৌধুরী, ফিনলে ভাড়াউড়া ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার জিএম শিবলীসহ বিভিন্ন চা বাগানে কর্মরত সিনিয়র প্রান্টার্সগণ, বিভিন্ন টি ভ্যালীর চেয়ারম্যানবৃন্দ, ব্রোকার্স হাউজের অভিজ্ঞ টি টেস্টারগণ এবং বিটিআরআই ও পিডিইউ’র বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাগণসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল হতে আগত চা
শিল্পের সাথে জড়িত প্রায় ৬০ জন ব্যক্তিবর্গ উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে চা বোের্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মাে: আশরাফুল ইসলাম উল্লেখ করে বলেন, “বাংলাদেশে এখন চায়ের
উৎপাদন ত্রমবর্ধমান পর্যায়ে রয়েছে। বর্তমানে দেশের অভ্যন্তরীণ চাহিদার তুলনায় আমাদের চায়ের উৎপাদন বেশি হচ্ছে।
আমরা এখন চিন্তা করছি, চা রপ্তানির পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে হবে। সেজন্য আমরা বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহুণ করছি। চা
রপ্তানির ক্ষত্রে কোয়ালিটি চা উৎপাদনের কোন বিকল্প নেই। মূলত, আমাদের টি প্লান্টার”সগণ টি টেস্টিং বিষয়টি ইনফরমালি শিখে থাকেন। এ বিষয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কার্স করানাের জন্য বাংলাদেশ চা বাের্ড হতে ইতােঃমধ্যে উদ্যোগ গ্রহণ
করে ২টি কোর্স সফলতার সাথে সম্পন্ন করা হয়েছে। গুণগতমানের চা উৎপাদনের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য কোর্সটি চলমান রাখা হয়েছে। চা বাের্ডের চেয়ারম্যান আশা করেন যে, কোর্সে অংশগ্রহণকারীগণ প্রাতিষ্ঠানিকভাবে টি টেস্টিং বিষয়ে
দক্ষতা অর্জন করতে সক্ষম হবেন এবং প্রত্যাশা করেন যে, চা শিল্পের সাথে সম্পূক্ত অংশীজনদের আন্তরিক অংশগ্রহণে
বাংলাদেশর চা শিল্প উত্তর উত্তর সমৃদ্ধ হবে। কোর্সটির শুভ উদ্বোধন ঘােষণার মাধ্যমে চা বার্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মাে: আশরাফুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যের ইতি টানেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বিটিআরআই’র পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ড. মোঃ ইসমাইল হােসেন উল্লেখ করেন যে, টি টেস্টিং এন্ড কোয়ালিটি কন্ট্রোল কোর্সটি সত্যিকার-অর্থে টি ইন্ডাস্ট্রির জন্য একটি খুবই প্রয়োেজনীয় কোর্স। এমন একটি কোর্স আয়ােজনের বিষয়ে মাননীয় চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ চা বার্ড কর্তৃক নির্দেশনা প্রদান করায় আমি স্যারকে অন্তরের অন্তস্থল হতে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করতে চাই। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বাংলাদেশীয় চা সংসদের চেয়ারম্যান, এম শাহ আলম বলেন যে, টি টেস্টিং কোর্সটি একটি সময় উপযোগী কোর্স এবং আমি বিশ্বাস করি যে, কার্সটি সম্পন্ন করার পর অংশগ্রহণকারীগণ টি টেস্টিং’র বিষয়ে প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা অর্জন করতে সক্ষম হবে এবং চা শিল্পের উন্নয়নে অবদান। রাখতে পারবে।

আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বাংলাদেশীয় চা সংসদের কমিটির সদস্য, তাহসিন আহমেদ চৌধুরী উল্লেখ করেন যে, টি টেস্টিং এন্ড কোয়ালিটি কন্ট্রাল কোর্সে অংশগ্রহুণকারীগণ বিশেষকরে বিভিন্ন চা বাগানের ব্যবস্থাপক ও সহকারী ব্যবস্থাপকগণ, যারা চা উৎপাদনের সাথে সরাসরি সম্পূক্ত রয়েছেন, উন্নত মানের চা উৎপাদন তাদের জন্য সহজতর হবে। এছাড়া তিনি গুণগতমানের চা উৎপাদনের বিষয়ে অত্মনিয়োেগ করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি জোর আহবান জানান।

অনুষ্ঠানের সভাপতি পিডিইউ’র পরিচালক ড. এ, কে, এম, রফিকুল হক বলেন যে, বাংলাদেশে বর্তমানে ১৬৭টি চা বাগান রয়েছে। যার মোট আয়তন ২৭৯৪৩৯.৬৩ একর, এর মধ্যে চা চাষাধীন জমি রয়েছে ১৫৪৫১৫.৭৯ একর। এছাড়াও ক্ষুদ্রায়ন চা চাষাধীন জমির পরিমাণ প্রায় ৮০৫৭ একর। তিনি আরও বলেন, দেশে চায়ের উৎপাদন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

দেশের আভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটিয়ে ঐতিহ্যবাহী রপ্তানীমুখী এ চা শিল্পের উৎপাদনের কিয়দংশ বিদেশে রপ্তানী করে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করার লক্ষ্যে কাজ করছে বাংলাদেশ চা বাের্ড। তারই ধারাবাহিকতায় গুণগত মানের চা উৎপাদন
এবং উৎপাদিত চায়ের মান যাচাইয়ের জন্য দক্ষ টি টেস্টার তৈরির জন্য প্রাতিষ্ঠানিক এ কার্সের আয়োাজন করেছে বাংলাদেশ চা বাের্ডের প্রকল্প উন্নয়ন ইউনিট।

#


error: Content is protected !!