বুধবার, ৩রা জুন, ২০২০ ইং, ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
বুধবার, ৩রা জুন, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরে ঐতিহাসিক জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

শরীয়তপুরে ঐতিহাসিক জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

শরীয়তপুরে ৩ নভেম্বর রবিবার বিকেল সাড়ে ৩ টায় আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে ঐতিহাসিক জেলহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ইকবাল হোসেন অপু।
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাবেদুর রহমান খোকা সিকদার-এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নুর মোহাম্মদ কোতোয়াল, সাবেক সভাপতি ও শরীয়তপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুর রব মুন্সী, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও বিজ্ঞ পিপি এডভোকেট মির্জা হযরত আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও সাবেক দপ্তর সম্পাদক এবং বিজ্ঞ জিপি এডভোকেট আলমগীর হোসেন মুন্সী, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য কামরুজ্জামান উজ্জ্বল। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক নুহুন মাদবরসহ জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।
আলোচনা সভায় উপস্থিত বক্তারা বলেন, এ দিনটি বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি স্মরনীয় দিন। এ দিনে বাংলাদেশের চার বীর নেতাকে জেলখানায় হত্যা করেছে। পৃথিবীর ইতিহাসে এমন ঘটনা বিরল।
উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর ৩ নভেম্বর তার ঘনিষ্ঠ চার সহকর্মী সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, এম মনসুর আলী ও এ এইচ এম কামরুজ্জামানকে কারাগারে হত্যা করা হয়।
বাংলাদেশের ইতিহাসে ৩ নভেম্বর কলঙ্কময় ও বেদনাবিধুর একটি দিন। রাষ্ট্রের হেফাজতে জেলখানায় জাতীয় চার নেতা হত্যার দিনটি ‘জেল হত্যা দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।