শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী
শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং

শরীয়তপুরে ‘মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান’ নিয়ে পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন

শরীয়তপুরে ‘মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান’ নিয়ে পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন

মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান (১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত)-এর সাফল্য নিয়ে শরীয়তপুর-এর পুলিশ সুপার এস. এম. আশরাফুজ্জামান এক সংবাদ সম্মেলন করেন।

শনিবার ৭ নভেম্বর জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(নড়িয়া সার্কেল) এস. এম. মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) তানভীর হায়দার শাওন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(গোসাইরহাট সার্কেল) তানভীর আহমদ, জেলা গোয়েন্দা শাখার ডিবি ওসি সাইফুল আলম, পালং মডেল থানার ওসি(তদন্ত) এস. এম. আতিকউল্লাহসহ বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার এস. এম. আশরাফুজ্জামান বলেন, এবারের মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে জেলা পুলিশের তৎপরতায় জেলার ৭০ কিলোমিটার নদীতে মা ইলিশ সংরক্ষণে বেশ সাফল্য এসেছে। তিনি বলেন, এ বছর জেলায় ১৮৯টি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়। অভিযান হয়েছে ২৫৩টি, মা ইলিশ জব্দ হয়েছে ৪ হাজার ৭০০ কেজি, কারেন্ট জাল জব্দ হয়েছে ৭৯ লক্ষ ৮০ হাজার ৯’শ মিটার, বের জাল জব্দ হয়েছে ২টি। সকল জালের মূল্য ১৫ কোটি ৬২ লক্ষ ১৮ হাজার টাকা। মামলা হয়েছে ২ হাজার ৩১৭টি, জরিমানা হয়েছে ৩৩ লক্ষ ৭৯ হাজার টাকা। কারাদন্ড দেয়া হয়েছে ১ হাজার ৬০২ জনকে। আর নিলাম থেকে সরকারের আয় হয়েছে ২৫ লক্ষ ৩২ হাজার টাকা। এ সাফল্যের পিছনে শরীয়তপুর জেলা পুলিশের ভূমিকার জন্য পুলিশ সুপার গর্বিত কণ্ঠে বলেন, আমাদের পুলিশের তৎপরতার কারনেই এ অভিযানগুলো সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে পুলিশ বাহিনী তাদের সততার জন্য একদিন উচ্চ আসনপ্রাপ্ত হবে।