বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ ইং, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী
বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ ইং

শরীয়তপুরে জমি-জমার জের ধরে মিথ্যা অপহরণ মামলা

শরীয়তপুরে জমি-জমার জের ধরে মিথ্যা অপহরণ মামলা

শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলার ডি.এম.খালী ইউনিয়নের চাচা ভাতিজার জমি-জমা সক্রান্ত জের ধরে চাচা আজাহারুল সরদার ভাতিজা জুয়ের সরদারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপহরণ মামলা করছেন বলে জানা গেছে। এর আগেও একটি মিথ্যা মামলা করেছেন শরীয়তপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেড আমলি আদালতে। মামলা নং- সি.আর ৬০/২০২১ সখিপুর।

এ ঘটনা সম্পর্কে জুয়েল সরদার দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, ২০০৪-৫ এর দিকে সৌদি যাই। প্রবাসী জীবনে সৌদি ২০০৪-৫ হইতে ২০১৮ পর্যন্ত প্রবাসী জীবন কাটাই শেষে বাংলাদেশে ২০১৮ সালে নিজের জন্মভূমি শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ উপজেলা ডি.এম.খালী ইউনিয়ন বাড়ীতে আসি। ষড়যন্ত্রমূলক আমার আপন চাচা আজাহারুল সরদার সুবিধা নেয়ার জন্য আমার নামে একটি সাজানো মিথ্যা অপহরণ মামলা দায়ের করে। আমি নাকি আমার চাচাত বোন তানিয়া কে অপোহরন করেছি। আমার চাচা আজাহারুল সরদার অভিযোগ করেন। কিন্তু আমি বিদেশ থেকে এসে এলাকার মানুষের কাছে জানতে পারি যে, তানিয়া ৪-৫ বছর যাবৎ নিখোঁজ আছে। আমি যদি অপরাধী হয়ে থাকি তাহলে উপযুক্ত স্বাক্ষী প্রমাণ সহ আইন আমাকে যা শাস্তি দিবে আমি তা মাথা পেতে নিব। আমার চাচা আজাহারুল সরদার আমার নামে মিথ্যা হয়রানী মূলক মামলা দিয়ে আমাকে মানুষিক ভাবে হয়রানি করছে আমি তার উপযুক্ত শাস্তি দাবী করছি।

অভিযোগকারী আজাহারুল সরদারের কাছে তার মেয়ে তানিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, আমার মেয়ে তানিয়াকে জুয়েল সরদার ও তার মা ২ বছর আগে ঢাকায় নিয়ে গেছেন। এখন আমি আমার মেয়ের কোনো খোঁজ-খবর পাইনা। তাই আমি শরীয়তপুর কোর্টে ০৬/০৭/২০২১ তারিখে একটি অপহরণ মামলা করেছি। আমি আমার মেয়েকে ফেরত চাই।

ডি.এম.খালী ইউনিয়ন পরিষদের চৌকিদার সিরাজ গাজী দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, আজাহারুল সরদার এর মেয়ে তানিয়ার মানুষিক ভারসাম্য ছিল না। আমি বিগত ৪/৫ বছর আগে নাইট ডিউটি করতাম তখন প্রায়ই রাতে ডি.এম.খালী বাজারে চলে আসত। আমি তানিয়াকে তার বাবা আজাহারুল এর কাছে পৌছাইয়া দিতাম। হঠাৎ একদিন জানতে পারি আজাহারুলের মেয়ে তানিয়াকে পাওয়া যাইতেছে না। আজ প্রায়ই ৫/৬ বছর যাবৎ নিখোঁজ আছে। এখনও পর্যন্ত বাড়ীতে আসেনি।

স্থানীয় নুরুল আমিন ঢালী ও সফি ঢালী দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, আজাহারুল সরদার এর মেয়ে তানিয়ার মানুষিক ভারসাম্য তার ছিল না। তানিয়া ৪-৫ বছর যাবৎ নিখোঁজ। এখনও পাওয়া যায় নাই।

তদন্ত কর্মকর্তা (এস আই) সাচ্চু বলেন, জুয়েল সরদারের নামে একটি নিয়মিত মামলা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আসাদুজ্জামান হাওলাদার দৈনিক রুদ্রবার্তাকে বলেন, আমরা খোঁজ-খবর নিয়ে সঠিক রিপোর্ট পাঠায়ে দিব।