শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ ইং, ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে মুহাররম, ১৪৪৪ হিজরী
শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ ইং

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পেলেন কণ্ঠ শিল্পী সামিনা ইয়াছমিন

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পেলেন কণ্ঠ শিল্পী সামিনা ইয়াছমিন

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড ১৪২৫ পেয়েছেন শরীয়তপুর সদর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, শরীয়তপুর প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশিষ্ট কণ্ঠ শিল্পী সামিনা ইয়াছমিন। শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য আঞ্চলিক ভাষা ও বাঙ্গালী সংস্কৃতি পরিষদের পক্ষ থেকে গত ২৬ এপ্রিল বিকাল ৪টায় ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশন সেমিনার হলে তাকে এই এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।
শরীয়তপুরের প্রিয় মুখ সামিনা ইয়াছমিন ইতিপূর্বে বহু সংগঠনের পক্ষ থেকে একাধিক এ্যাওয়ার্ড ও পুরস্কার অর্জন করেন। অসংখ্য সংগঠনের সাথে জড়িত সামিনা ইয়াছমিন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শরীয়তপুর সদর উপজেলায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।
সমাজে পিছিয়ে পড়া প্রতিবন্ধীদের কথা চিন্তা করে ২০০৪ সালে সামিনা ইয়াছমিন শরীয়তপুর শহরে গড়ে তোলেন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় এবং নিজের নামে প্রতিষ্ঠা করেন ত্রিমূখী সামিনা সাংস্কৃতিক একাডেমী। দীর্ঘদিন যাবত আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত সামিনা ইয়াসমিন বর্তমানে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতির পদে রয়েছেন। ৩০ বছর যাবত সুনামের সাথে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে ওস্তাদী করার পর বর্তমানে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কার্যকরি কমিটির যুগ্ম সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া দীর্ঘ ২৮ বছর যাবত শরীয়তপুর জেলা শিশু একাডেমীর প্রশিক্ষক হিসেবে আছেন এই গুনি ব্যক্তি। ২০১০ সালে জাতীয় পর্যায়ে সেরাকণ্ঠ হিসেবে চ্যাম্পিয়ন হয়ে স্বর্ণপদক লাভ করেন শরীয়তপুরের বিশিষ্ট কণ্ঠ শিল্পী সামিনা ইয়াছমিন। প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে অনেক সুনাম অর্জন ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে অসংখ্য পুরস্কার লাভ করেন তিনি। বিশিষ্ট সমাজসেবক হিসেবে একাধিক শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন ও সমাজে অসামান্য অবদান রাখার জন্য জেলার শ্রেষ্ঠ জয়ীতাও হয়েছেন এই মহিয়সী নারী।


error: Content is protected !!